সুনামগঞ্জের হাট বাজার গুলোতে পানি,কাদাঁ : দূর্ভোগে জনসাধারন

প্রকাশিত: ১০:০৯ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০১৮

সুনামগঞ্জের হাট বাজার গুলোতে পানি,কাদাঁ : দূর্ভোগে জনসাধারন

Sharing is caring!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারের সড়ক গুলোতে পানি জমে চরম জনদূর্ভোগের শিকার হচ্ছে জনসাধারন। ড্রেনের ব্যবস্থা না থাকায় সামান্য বৃষ্টি হলেই জেলার প্রতিটি উপজেলার অর্ধশতাধিক বাজার গুলোর মূল সড়ক পানিতে টইটুম্ভুর হয়ে যায়। এত করে জনদূর্ভোগে পড়তে হয় বাজারে আসা দৈনিক নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য ক্রয়-বিক্রয় করতে আসা স্থানীয় কৃষক,বাজারের ফুটপাতের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী,বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী,শিক্ষক,স্থানীয় ব্যবসায়ী,সড়ক দিয়ে চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহনসহ সর্বস্থরের জনসাধারনকে। জানাযায়,জেলার তাহিরপুর,জামালগঞ্জ,ধর্মপাশা,দিরাই,শাল্লা,জগন্নাথপুর,দোয়ারা বাজার,ছাতকসহ ১১টি উপজেলায় চরম দূর্ভোগে রয়েছে স্থানীয় জনসাধারন। তাহিরপুর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের সাড়ে তিন লক্ষাধিক জনসাধারনের চলাচলের মূল সড়ক হিসাবে বাজার গুলোই দিয়েই উপজেলা ও জেলা সদরে সাথে যোগাযোগ রক্ষা করা হয়। এছাড়াও বাজার গুলো দিয়েই বিভিন্ন স্কুল,কলেজের ছাত্র-ছাত্রী,সরকারী-বেসরকারী বিভিন্ন প্রতিষ্টানের চাকরীজীবি,ব্যবসায়ীরা যার যার নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাতায়াত করে থাকে সহজে বাজার গুলোর মধ্য দিয়েই। উপজেলার ছোট-বড় অর্ধশতাধিক হাট-বাজারের মধ্যে উপজেলার ব্যবসা বানিজ্যের প্রান কেন্দ্র বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট বাজার (সংস্কার কাজ হলেও) লাউড়েরগড় বাজার,তাহিরপুর সদর ইউনিয়নের সদর বাজার,আনোয়ারপুর বাজার,উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বাগলী বাজার,নতুন বাজার,বড়ছড়া বাজারসহ অন্যান্য বাজার গুলোতে সড়কের সংস্কার হয় নি ও ড্রেনের ব্যবস্থা নেই। ফলে সামান্য বৃষ্টি হলেই পানি জমে ডুবে যায় আর কাঁদায় একাকার হয়ে সড়ক গুলোতে চলাচলে নেমে আসে চরম দূর্ভোগে। বাজার গুলোতে থেকে বৃষ্টির পানি বাহিরে বের হবার জন্য ড্রেন সংযোগ না থাকায় ও প্রয়োজনীয় উদ্যোগ না নেওয়ায় চরম দূর্ভোগের মধ্যে পরতে হয় সর্বস্থরের জনসাধারনকে। বার বার এলাকাবাসী সহ স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বাজার গুলোতে ড্রেন তৈরী ও রাস্তা মেরামত করার জন্য দাবী জানিয়ে আসলেও কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় ক্ষুব প্রকাশ করছে বাজার গুলো দিয়ে চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। উপজেলার বিভিন্ন বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান,বাজার গুলোতে পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেন না থাকায় বৃষ্টি হলেই পানি জমে থাকে আর রাস্তা গুলো কাঁদা হয়ে যায়। আর রাস্তার পাথর উঠে গিয়ে বড় বড় গর্ত হয়ে গেছে এতে করে বাজারের আসা ক্রেতা ও আমরা ব্যবসায়ীরা চরম দূভোর্গে আছি। তাহিরপুর উপজেলা সদর বাজারের ব্যবসায়ী শিবলি আহমদসহ অনেকেই জানান,উপজেলা সদরের বাজারটির দিকে কারো নজর নাই। বৃষ্টি হলেই বাজারে কৃশি ব্যাংক থেকে পোষ্ট অফিস রোড পর্যন্ত পানি জমে ও কাঁদা হয়ে যাওয়ায় চলাচলে দূর্ভোগ পোহাতে হয় আমাদের সবাইকে। দ্রুত এর সমাধান করা খুবেই প্রয়োজন। উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট বাজার বনিক সমিতির সভাপতি সেলিম হায়দার ও সাধারন সম্পাদক মাসুক মিয়া বলেন,বাদাঘাট বাজারের সড়ক ভাঙ্গা ছুড়া ছিল ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি সাহেবের চেষ্টায় সড়কের মেরামত হয়েছে। বাজারের বিভিন্ন পয়েন্টে লাইট পোষ্ট স্থাপন করা হয়েছে। তাহিরপুর বাজার বনিক সমিতির সাধারন সম্পাদক এরশাদ মিয়া জানান,বাজারের ড্রেনের ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানিতে বাজারের সড়ক গুলো পানিতে ডুবে যায় ও কাদাঁযুক্ত হয়ে পড়ে। বাজারের চতুর দিকে ড্রেন তৈরী করে জমে থাকা পানি বাজারের বাহিরে চলে যাওয়ার ব্যবস্থা করা খুবেই প্রয়োজন। এব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান,নির্বার্হী কর্মকর্তা ও সদর ইউপির চেয়ারম্যানের দৃষ্টি আকর্শন করছি। তারা সহযোগীতা করলে খুব দ্রুতই সমাধান হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

June 2018
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares