ওসমানী মেডিকেল রোডে অবৈধ ষ্ট্যান্ড : টিআই শওকতের চাদাঁবাজি

প্রকাশিত: 2:05 AM, January 5, 2018

ডেস্ক নিউজ : নগরীর ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সিএনজি অটোরিক্সা ষ্ট্যান্ডে ট্রাফিক পুলিশের চাদাঁবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। সিলেট সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি. নং-৭০৭-এর কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন, সিএনজি অটোরিক্সা চালক আব্দুল বারী, সুজন, নারায়ন বাবু ও মহসীন এই অভিযোগ করেন।
জানা গেছে, গত রোববার দুপুরে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সিএনজি অটোরিক্সা ষ্ট্যান্ডে টিআই শওকত হোসাইন গিয়ে জানান এই ষ্ট্যান্ড অবৈধ, এখানে গাড়ি রাখা যাবে না। গাড়ি পার্কিং করে রাখতে হলে প্রতিদিন ১ হাজার টাকা ট্রাফিক অফিসকে দিতে হবে। এসময় ষ্ট্যান্ড সভাপতির সাথে বাক-বিতন্ডা বাধে টিআই শওকতের। একপর্যায়ে ষ্ট্যান্ডের ড্রাইভাররা উত্তেজিত হলে টিআই শওকত ষ্ট্যান্ড থেকে চলে যান।
সিলেট সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয় রেজি. নং-৭০৭-এর কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুন বলেন, আমাদের ষ্ট্যান্ডের বৈধতা থাকার পরও টিআই শওকত হোসাইন অবৈধ দাবী করেন। কাগজাদি দেখানোর পরও তিনি বলেন, এই ষ্ট্যান্ড এখানে থাকতে হলে প্রতিদিন ১ হাজার টাকা করে ট্রাফিক অফিসকে দিতে হবে।
সিএনজি অটোরিক্সা চালক আব্দুল বারী বলেন, টিআই শওকত স্থানীয় ফুটপাত ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যারপর ২শত টাকা করে বখরা নেন। আমাদের ষ্ট্যান্ডের গাড়ি কাগজপত্র থাকারপরও বিভিন্ন সময়ে তিনি আমাদের গাড়ি আটক করে চাঁদা দাবী করেন।
এবিষয়ে টিআই শওকত হোসাইন বলেন, আমি আমার উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেষে সেখানে গিয়ে লাইসেন্স বিহীন একজন ড্রাইভারকে মামলা দেই। তাদের অভিযোগ মিথ্যা দাবী করে তিনি বলেন, এই ষ্ট্যান্ড অবৈধ। তাদের কোন অনুমতি নেই।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..