তাহিরপুরে নাউটানা বাঁধ ভেঙ্গে দেওয়ায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের

প্রকাশিত: ৯:১৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৭, ২০১৮

Sharing is caring!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা টাংগুয়ার হাওরের নাউটানা খালের বাধঁ ভেঙ্গে দেওয়ার বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় ৮জনের নাম উল্লেখ্য করে অজ্ঞাত ৯০জনকে আসামী করে তাহিরপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন টাংগুয়ার হাওরের সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির কোষাধক্ষ্য খসরুল আলম। মামলাটি দায়ে করা হয়েছে বৃহস্পতিবার (২৬এপ্রিল) রাতে। মামলা দায়ের পর পুলিশ আনোয়ার হোসেন নামে এক আসামীকে গ্রেফতার করে শুক্রবার বিকালে জেল হাজতে প্রেরন করেছে। মামলায় আসামী করা হয়েছে উপজেলা উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের হুকুমপুর গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে আরিফ মাঝি (২২),তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২৮),দিল হুসেনের ছেলে মিজানুর রহমান (২৭),আলী হোসেনের ছেলে বকুল মিয়া (৩০),সুলতান মিয়া (২৬),দুমাল গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে সোহেল মিয়া (২৭) ও তার ভাই রফিকুল ইসলাম (৩২),লামাগাঁও গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে পাবেল মিয়া (৩২)। বাকী অন্যান্য আসামীগন অজ্ঞাত। অভিযোগ রয়েছে-উপজেলার উত্তরশ্রীপুর ইউনিয়নের স্থানীয় জেলেরাই পরিকল্পিত ভাবে বান্দিয়া জাল দিয়ে মাছ ধরার জন্য বৃহস্পতিবার(২৬এপ্রিল)ভোরে এই বাঁধটি কেটে দেওয়া। এর ফলে ইতি মধ্যে হাওরের ৪হাজার একরের বেশী জমিতে পাকা ধানের প্রায় ৪০ভাগ বোরো ধান পানির নিচে চলে গেছে। বৈরী আবহাওয়ায় নদীতে পানি বাড়ছে। দ্রুত এই বাঁধটি দিয়ে পানি প্রবেশ করা বন্ধ করা না হলে এই পানি টাংগুয়ার হাওর পাড়ের ৮৮টি গ্রামসহ আরো টাংগুয়ার হাওরের ১০টি বাঁেধ আঘাত করবে। এতে করে ঝুঁকির মধ্যে পরবে হাওর গুলো হল,টাংগুয়ার হাওরের এরালিয়াকোনা,গনিয়াকুরি,লামারগুল,টানেরগুল,নান্দিয়া,মাজেরগুল,গলগলিয়া,টুঙ্গামারা,সুনাডুবি,শামসাগর।

তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানা,মাছ শিকার করার জন্য হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধ কাটায় ৮জনের নাম উল্লেখ্য করে আরো অজ্ঞাত ৯০জনকে আসামী করে বিশেষ ক্ষমতা মামলা দায়ের করা হয়েছে। একজন কে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের সর্বোচ্ছ চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares