”মৌলভীবাজারে কাজের বুয়াকে ধর্ষণ” গোনে নিষ্পত্তির চেষ্টা

প্রকাশিত: ২:৪৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০১৮

Sharing is caring!

ক্রাইম ডেস্ক :: মৌলভীবাজারে মনিবের ধর্ষণে কাজের বুয়া ৫ মাসের অন্ত:সত্তা হবার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ১নং খলিলপুর ইউনিয়নের কেশবচর গ্রামে। বিলম্বে প্রাপ্ত খবরে প্রকাশ- কেশবচর গ্রামের মৃতঃ ছুফি মিয়ার পুত্র ও নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি বাজারের ‘রায়হান ফ্যাশন’ এর স্বত্তাধিকারী রোমন আহমদ (৩২) তার বাসার কাজের বুয়া ১ সন্তানের জননী স্বপ্না বেগমের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ দৈহিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছিল। একপর্যায়ে স্বপ্না বেগম অন্ত:সত্তা হয়ে পড়লে, গর্ভপাত করানোর জন্য রোমন আহমদ তাকে বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে নিয়ে যাবার চেষ্টা করেন।
এমতাবস্থায়, রোমন আহমদের চাচা ১নং খলিলপুর ইউপি মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান হাজী ইলিয়াস মিয়া গোপনে নিষ্পত্তির জন্য গত ১৮ মার্চ দফায় দফায় বৈঠক করে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালান বলে সূত্রে প্রকাশ। একই সূত্র জানায়- গোপনে নিষ্পত্তিতে ব্যর্থ হয়ে চাচা-ভাতিজা মিলে এখন থানা পুলিশ ম্যানেজ করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। পরিচয় গোপন রাখার শর্তে স্থানীয় একটি সুত্রে জানা গেছে- তার বড়ভাই আমেরিকা প্রবাসী শাহিন আহমদের প্রথম স্ত্রী নারীলোভী রোমন আহমদের কারণে অতীষ্ট হয়ে স্বামী শাহিন আহমদকে তালাক প্রদান করে। এ নিয়েও দুই ভাইয়ের মধ্যে চরম বিরোধ চলছে।
এমতাবস্থায়ও গোয়ালাবাজারস্থ শাহিন আহমদের শ্বশুরালয়ে গিয়ে তার সাবেক ভাবীকে উত্যক্ত করার কারণে সেখানকার লোকজন রোমন আহমদকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে বিদায় করে। অপর একটি সূত্রে জানা গেছে- অভিযুক্ত রোমন আহমদ এর বিরুদ্ধে একাধিক ধর্ষণ, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন মামলা রয়েছে। এসব মামলায় বর্তমানে সে জামিনে রয়েছে। এ ব্যাপারে বক্তব্য নেয়ার জন্য আজ ২৩ মার্চ শুক্রবার দুপুরে রোমন আহমদের ০১৭২২-৯১৯২৪৪ নম্বরযুক্ত মোবাইল ফোনে কল করলে সে তা রিসিভ করে জানায়- রোমন এখানে নেই। ফোনটি এখানে চার্জে রেখে গেছে। সে আসলে বলব আপনাকে ফোন করার জন্য। এরপর সন্ধা ৭টার দিকে আবারো ফোন করলে দেখা যায় তার ফোনটি ”ব্যস্ত” করে রাখা হয়েছে। এসময় আরেক নম্বরে কল করলে একই ব্যক্তি তা রিসিভ করে জানায়- আমি রোমনের বন্ধু। সে মৌলভীবাজার মডেল থানায় গেছে। সে আসলে বলব আপনাকে ফোন করার জন্য। রোমন আহমদের চাচা ১নং খলিলপুর ইউপি মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান হাজী ইলিয়াস মিয়ার ০১৭৫৩-২৮৩২৪২ নম্বরযুক্ত মোবাইল ফোনে কল করে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান- এ ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি। সর্বশেষ এ সংবাদ পরিবেশন পর্যন্ত অপর একটি সুত্রে জানা গেছে, শহরের একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে বিপুল টাকার বিনিময়ে গর্ভপাত করানো হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

March 2018
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares