ছদ্দবেশী প্রতারক গ্রেফতার!

প্রকাশিত: 3:52 PM, March 8, 2018

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: ছদ্দবেশী রিক্সা চালক সেজে প্রতারণা করে মহিলার স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যাবার চেষ্টাকালে সুনামগঞ্জ সদর থানা পুলিশ আলমগীর হোসেন নামের এক প্রতারককে গ্রেফতার করেছে।’ মঙ্গলবার রাতে পৌর শহর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।’ সে সদর উপজেলার মল্লিকপুরের নুরুল ইষলামের ছেলে।’

জানা গেছে, পৌর শহরের হাসন নগরের শ্যামল তালুকদারের স্ত্রী শিপ্রা রানী তালুকদার মঙ্গলবার বিকেলে ছদ্দবেশী প্রতারক আলমগীরের রিক্সায় চরে শহরের পুরাতন বাসায় যাবার পথে পথিমধ্যে নির্জন স্থানে রিক্সা থামিয়ে ৪ ভরি ওজনের দু’টি নকল স্বর্ণের বিস্কুট কম দামে বিক্রির প্রলোভন দেখায়।’ প্রতারক আলমগীর রিক্সা চালক , রিক্সার কোন এক যাত্রী ভ’লে স্বর্ণের বিস্কুট গুলো ফেলে গেছেন, এর প্রকৃত মালিককেও খুজে পাচ্ছেন না অনেদিন ধরে, তাই এগুলো জুয়েলারী দোকানে বিক্রয় করতে গেলে গরিব মাানুষ ফেঁসে যাবেন এমন গল্প তৈরীর এক পর্যায়ে ফুসলিয়ে মহিলার কানের দোল সহ গলার ২ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইনের বিনিময়ে ৪ ভরি ওজনের নকল স্বর্ণের দু’টি বিস্কুট ধরিয়ে দিয়ে আলমগীর সঠকে পড়ে। ’

এদিকে বাসায় ফিরে শিপ্রা তার স্বামী ও পরিবারের লোকজনকে নিজের স্বর্ণালংকার বদল করে স্বর্ণের বিস্কুট নিয়ে এসেছেন জানানোর পর প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়ে। এক পর্যায়ে প্রতারিত মহিলার স্বামী তাৎক্ষণিক ভাবে সদর মডেল থানায় জানালে পুলিশ পৌর শহরে অভিযান চালিয়ে প্রতারক আলমগীরকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশী অভিযানে আলমগীরের সহযোগী জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পলাশের মেরুয়াখলার দরবেশ আলীর ছেলে লিমন ও তাদের আরো একাধিক সহযোগী র্স্বণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায়। ’এ ঘটনায় প্রতারিত মহিলার স্বামী শ্রাশল তালুকদার বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে আলমগীর তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হাবীবুল্লাহ জুয়েল জানান, আলমগীর একজন ছদ্দবেশী প্রতারক। তিনি আরো বলেন, সে ও তার সহযোগীরা কখনো রিক্সা চালক , কখনো ফেরীওয়ালা সেজে ইতিপুর্বেও এমন ধরণের নানা প্রতারণার করলে প্রতারণার শিকার লোকজন সদর থানায় একাধিক মামলা দায়ের করেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

March 2018
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  

সর্বশেষ খবর

………………………..