অবৈধভাবে মাছ ধরার বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন

প্রকাশিত: 6:21 PM, January 29, 2018

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে জলমহালের ক্ষতি করে অবৈধভাবে মাছ ধরা ও জেলা নাজিরের বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ এনে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গত ২৬ ডিসেম্বর এ অভিযোগ দায়ের করেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার মামদপুর গ্রামের মৃত ইছাক আলীর পুত্র শিবলু উদ্দিন। অভিযোগে উল্লেখিত বিবাদীরা হলেন, একই উপজেলার মামদপুর গ্রামের মো. সালমান, দামোধরতপি গ্রামের মো. দিলু মিয়া, মো. আজিজুর রহমান, মামদপুরের মো. আসকর আলী, দামোধরতপীর খালন মিয়া।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, গেল বছরের জুলাই মাসে প্রকাশ্যে নিলামে অংশগ্রহণ করে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বড় হাইডোর বিল জলমহালটি নিলামে আনেন। তিনি সরকারি বিধি মোতাবেক জলমহালটি নিলাম এনে কাজ করে আসছেন। কিন্তু জেলা নাজির দায়িত্ব অবহেলা করে শিবলু উদ্দিনকে উক্ত জলমহালটি ভোগ করতে দেননি। এ সুযোগ অভিযোগে উল্লেখিত আসামীরা সরকারি জলমহালের জায়গায় তাদের ইচ্ছামতো ডোবা খনন করে অন্যায়ভাবে মাছ ধরে আসছেন। যাতে জলমহাল সহ সরকার বিশাল ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। তাছাড়া আসামীরা জলমহালে তাদের জায়গা দাবি করে ডোবা করে অবৈধ কারেন্ট জাল, কোণা জাল দিয়ে মাছ ধরে বিক্রি করেছে। এতে একদিকে সরকার রাজস্ব হারাচ্ছে অপরদিকে জলমহালটি ধ্বংসের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এসব অবৈধ কর্মকান্ডে বারবার বাধা প্রদান করেন জলমহালের প্রকৃত নিলামধারী শিবলু উদ্দিন। এতে বিবাদীরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে। এর পূর্বে আরেকবার জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ দায়ের করলেও কোন কাজ হয়নি। শিবলু উদ্দিন অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন, অবৈধভাবে মাছ ধরার ফলে জলমহালটি বর্তমানে মাছ শূণ্য হয়ে পড়েছে। এতে তিনি ১০/১২ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তাই আগামী নিলামে তাকে আবারো জলমহালটি নিলাম দেওয়া ও উপরোক্ত বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..