হযরত শাহপরান (রহ.) বার্ষিক ওরস শুরু : ভক্তদের ভিড়

প্রকাশিত: ২:০৮ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০১৭

Sharing is caring!

হযরত শাহপরাণ ছিলেন সুহরাওয়ারদিয়া এবং জালালীয়া বংশের একজন সূফী সাধক। বলা হয়ে থাকে ইয়েমেনের হাদরামুতে জন্মগ্রহণকারী হযরত শাহপরাণ (রঃ) ছিলেন হযরত শাহজালালের বোনের ছেলে। তিনি তাঁর মামা হযরত শাহজালালের সাথে ভারতে আসেন এবং ১৩০৩ সালে শাহজালালের নেতৃত্বে সিলেট অভিযানে অংশ নেন। সিলেট অধিগ্রহনের পর শাহপরাণ (রঃ) সিলেট শহর থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে দক্ষিনগড় পরগণার খাদিমনগরে খানকাহ স্থাপন করে সূফী মতবাদভিত্তিক আধ্যাত্মিক চর্চা ও কর্মকান্ড শুরু করেন। সিলেট অঞ্চলে মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠা ও ইসলামের প্রচারে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেন।
৩৬০ আউলিয়ার অন্যতম হযরত শাহপরান (রহ.) এর বার্ষিক ওরস আগামী ২৪, ২৫ ও ২৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। ওরস উপলক্ষে তিনদিন ব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে-২৪ নভেম্বর শুক্রবার খতমে কোরআন, বাদ আসর দোয়া ও রাতে জিকির আজকার এবং মিলাদ মাহফিল। পরদিন ২৫ নভেম্বর শনিবার সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত মাজারে গিলাফ চড়ানো, বাদ জোহর গরু জবেহ, সারারাত জিকির আজকার ও মিলাদ মাহফিল এবং ভোর ৪ টায় ফাতেহা পাঠ। ওরসের শেষ দিন ২৬ নভেম্বর বাদ ফজর আখেরি মোনাজাতের পর নেওয়াজ বিতরণ করা হবে। একই দিন বাদ আছর শরবত বিতরণ ও শেষ ফাতেহা পাঠের মধ্য দিয়ে ওরসের সকল কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) মোতোয়ালি মামুনুর রশীদ প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন।আজ শুক্রবার বাদ জুম্মা নগরীল আখালিয়া নতুন বাজার এলাকার পক্ষে থেকে সাংবাদিক শাহীন আহমদ ও ব্যাবসায়ী জামাল আহমদ নেতৃত্বে মাজারের গিলাফ প্রদান করা হয়।
এদিকে শাহপরান থানার ওসি আক্তার হসোন সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ওরস উপলক্ষে শাহপরান (রহ.) মাজার এলাকার নিরাপত্তা রক্ষায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে ৫ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক সিসি ক্যামেরা। আইন শৃঙ্খলার ব্যাপারে সিলেট মাজারের সকল প্রবেশ পথে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা দেওয়ার স্বার্থে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares