তাহিরপুরে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণায় আ,লীগের প্রার্থী,বিএনপি নিরব

প্রকাশিত: ৭:৪০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০১৯

তাহিরপুরে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণায় আ,লীগের প্রার্থী,বিএনপি নিরব

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া,সুনামগঞ্জ :: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ,লীগের বিজয়ের আনন্দের রেশ কাটতে না কাটতেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে শুরু হয়েছে তোরজোড়। ফেব্রæয়ারী মাসে তফশিল আর মার্চে নির্বাচন হচ্ছে নির্বাচন কমিশনের এমন ঘোষনায় নড়েচড়ে বসেছেন সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় আ,লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে আগ্রহী একাধিক প্রার্থীরা। তারা দলের নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ বাড়িয়েছেন এবং দলীয় মনোনয়নের জন্য আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে যোগাযোগ রাখছেন। আর আ,লীগের সম্ভাব মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সমর্থকরা তাদের পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ইতিমধ্যে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে,বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ এনে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে আবারও নির্বাচনের দাবী জানিয়েছে সিইসির কাছে। ফলে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ নিয়ে পরিস্কার কোন আভাস না পাওয়ায় দলটির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের প্রচার প্রচরনা একবারেই নেই। তারা একবারেই নিরবতা পালন করছে।

প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচনে কে হচ্ছেন চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তা নিয়ে আলোচনা সমালোচনার কমতি নেই এ উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের হাট-বাজার,চায়ের দোকান,পাড়া-মহল্লায়। এই আলোচনায় উঠে এসেছে নির্বাচন নিয়ে নানান মুখরোচক কথা। ভোটাদের দাবী যোগ্য প্রার্থী আর নিজের ভোট নিজে হাতে ভোট কেন্দ্রে দেবার। কোন অযোগ্য লোককে নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন না দেবার দাবী প্রধান দুটি দলের র্শীষ নেতৃবৃন্ধের প্রতি। আর এনিয়ে উপজেলা জুড়ে বিরাজ করছে এক ভিন্ন রকম আরেকটি নির্বাচনী পরিবেশ।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী ও তাদের কর্মী সমর্থকদের সাথে আলাপকালে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন অনেক নেতাই। তবে দলের মনোনয়ন না পেলে বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচন করবেন না বলে জানিয়েছেন সম্ভাব্য অধিকাংশ উপজেলা প্রার্থীগন।

তবে এখনো আনুষ্টানিক ভাবে আ,লীগের চেয়ারম্যান,ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কোন প্রার্থী নিজের প্রার্থীতা ঘোষনা করে নি।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তাহিরপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে প্রচার প্রচারণায় রয়েছেন-সাবেক ছাত্রনেতা,সুনামগঞ্জ জেলা আ,লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের সভাপতি আবুল হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আলফাজ উদ্দিন খন্দকার,তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,বাংলাদেশ আওয়ামীযুবলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক,সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক,জেলার শ্রেষ্ট করদাতা খন্দকার মঞ্জুর আহমেদ। ৯০’দশকের ছাত্রনেতা,তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক,তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক,উপজেলা প্রেস ক্লাব সভাপতি,সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ তাহিরপুর উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি,বাংলাদেশ আওয়ামীযুবলীগ তাহিরপুর উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি,তাহিরপুর উপজেলা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান,বাংলাদেশ আ,লীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সদস্য শামীম আখঞ্জি,তাহিরপুর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ সাবেক আহবায়ক অনুপম রায় প্রমুখ।

উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্ধ বলছেন,আওয়ামীলীগের একাধিক যোগ্য নেতা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন প্রত্যাশায় প্রচার প্রচারণায় চালিয়ে যাচ্ছেন। দল যাকে যোগ্য মনে করে তাঁকে মনোনয়ন দেবে।

আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয় প্রত্যাশী বাদাঘাট ইউনিয়নের আ,লীগের যুগ্ম আহবায়ক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান তালুকদার বলেন,আমি আশাবাদী দল আমাকে মূল্যায়ন করবে। দল আমাকে নৌকা প্রতীক দিলে আমি অবশ্যই বিজয়ী হবো।

আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয় প্রত্যাশী বাংলাদেশ আওয়ামীযুবলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক,সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক,জেলার শ্রেষ্ট করদাতা খন্দকার মঞ্জুর আহমেদন বলেন,আমি এই এলাকার সন্তান এ উপজেলায় আমার পারিবারিক ও দলীয় কার্যক্রমের ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। এলাকাবাসী আমার সাহস,শক্তি আর তারাই আমাকে উৎসাহ দিচ্ছে নির্বাচন করতে। তাই আমি সবার চাওয়া পূরন করতেই নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাই।

তাহিরপুর উপজেলা আ,লীগের সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর বলেন,দল আমাকে নৌকা প্রতীক দিলে আমি অবশ্যই বিজয়ী হবো। আমি আশাবাদী দল আমাকে মূল্যায়ন করবে।

সুনামগঞ্জ জেলা আ,লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,বলেন,আমি এই এলাকার সন্তান। তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সুসংগঠিত দল। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করবো। তাছাড়া অন্য জন পেলেও আমরা তার সঙ্গে নির্বাচনে থাকবো।

Sharing is caring!

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..