সুরমা নদীতে প্রভাবশালীদের আগ্রাসন বৈধ মৎস্যজীবীদের মানবেতর জীবন

প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০১৮

সুরমা নদীতে প্রভাবশালীদের আগ্রাসন বৈধ মৎস্যজীবীদের মানবেতর জীবন

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : সিলেট নগরীর ক্বীন ব্রীজ থেকে শাহপরান (রহ.) থানা এলাকায় সুরমা নদীতে বৈধ কার্ডধারী মৎস্যজীবীদের মাছ শিকারে বাধা প্রদানের অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে গত ৫ ডিসেম্বর বৈধ মৎস্যজীবীরা সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট সিটির ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোহেল আহমদ রিপন, ৫নং টুলটিকর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ আলী হোসেন, ৪নং খাদিমপাড়া ইউপির ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ড সদস্য ফাতেমা আক্তার পারুল, ৩নং ওয়ার্ড সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেনকে পৃথকভাবে লিখিতভাবে অবগত করেছেন।

জানা যায়, সুরমা নদীর ক্বীন ব্রীজ এলাকা থেকে হেতিমগঞ্জ পর্যন্ত একটি প্রভাবশালী মহল অবৈধভাবে মাছ শিকার করে যাচ্ছেন। যে কারণে বৈধ কার্ডধারী মৎস্যজীবীরা সন্তান-সন্ততি নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বৈধ কার্ডধারী মৎস্যজীবীরা মাছ শিকারে গিয়ে এখন নানা প্রতিবন্ধকতা ও বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন। এ অবস্থায় বেকার হয়ে পড়া এসব মৎস্যজীবীরা চরম দুরাবস্থার মধ্যে জীবন-যাপন করছেন।

মৎস্যজীবী মোঃ লাল মিয়া, জায়েদ মিয়া, কবির মিয়া, মজলু মিয়া জানান, নদী রক্ষণা-বেক্ষণ কর্তৃপক্ষকে অভিহিত করার পরও এসব তৎপরতা বন্ধে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। ফলে অনাহারে-অর্ধাহারে জীবন-যাপন করছেন ৫ শতাধিক মৎস্যজীবী পরিবারের সদস্যরা। জীবিকা নির্বাহ না করতে পারায় তাদের সন্তানদের লেখা-পড়া করাতে পারছেন না।

এ অবস্থায় বৈধ মৎস্যজীবীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘জার যার জলা যার, নীতি বাস্তবায়নে প্রশাসন এগিয়ে আসার আবেদন জানান।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..