প্রতীক বরাদ্দের আগে প্রচারণা নয়, লাগানো পোস্টার সরানোর নির্দেশ

প্রকাশিত: 3:52 PM, November 9, 2018

প্রতীক বরাদ্দের আগে প্রচারণা নয়, লাগানো পোস্টার সরানোর নির্দেশ

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : তীক বরাদ্দের আগে কোন নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালানো যাবে না উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আগামী ৩০ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দের আগে কোন নির্বাচনী প্রচার চালানো যাবে না। তবে প্রতীক বরাদ্দের পর টানা ২১ দিন প্রচার চালাতে পারবেন প্রার্থীরা। এছাড়াও তিনি ইতিমধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা হিসেবে লাগানো সকল ব্যানার, পোস্টার ও তোরণ আগামী  আগামী সাত দিনের মধ্যে নামিয়ে ফেলারও নির্দেশ দেন। নির্দেশ না মানলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে নির্বাচন কমিশন ভবনে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনে (ইসি) নিবন্ধন নেই এমন দলের সদস্যরা যেকোনো নিবন্ধিত দলের প্রার্থী হতে পারবেন। এক্ষেত্রে ডা. কামাল হোসেন নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের মধ্যে যারা নিবন্ধিত দলের সদস্য নন, তারা নিবন্ধিত দলগুলোর প্রার্থী হতে পারবেন। এতে আইনগত বাধা নেই বলেও জানান ইসি সচিব।

জামায়াত ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে, দলটির সদস্য থাকা অবস্থায় কেউ যদি স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচন করতে চায়, সিটা বন্ধ করার কোনো উপায় আছে কি-না? এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, এমন কোনো আইন নেই। এই অবস্থায় জামায়াতের প্রার্থীরাও স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচন করতে পারবেন।

হেলালুদ্দীন আহমদ আরো জানান, আগামী রোববার থেকে অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে পারবেন প্রার্থীরা।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, আগামী তিনদিনের মধ্যে দলগুলোকে জোটের তথ্য দিতে হবে। আমরা আজকেই চিঠি দেবো।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..