ঘটনাবহুল বছর পার করলো সিলেটবাসী

প্রকাশিত: ২:৩৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১, ২০১৮

Sharing is caring!

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে :  ২০১৭ সালে পরপর তিন দফা বন্যায় আক্রান্ত হয় সিলেট। প্রায় ৬ মাস মানুষ পানিবন্দি ছিলেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগের এই সময়ে লোমহর্ষক খুন, পাথর কোয়ারিতে শ্রমিক মৃত্যুর মিছিল, ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে একের পর এক খুনসহ নানা ঘটনায় গোটা বছরই উত্তপ্ত ছিল সিলেট। আলোচনায় ছিলেন সিলেটের শিল্পপতি রাগিব আলী। রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকলেও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি প্রবাসী শহর সিলেটের মানুষকে ভুগিয়েছে। আতিয়া মহলের জঙ্গি অভিযান কাঁপিয়েছে গোটা দেশ।

এতো কিছুর মধ্যেও বছরের শেষ দিকে এসে সিলেটের শীতলপাটির বিশ্বজয় সিলেটবাসীর মুখে হাসি ফুটিয়েছে। বছর শুরু হয় মৃত্যুর মিছিল দিয়ে। জানুয়ারি মাসের শেষদিকে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের শারপিন টিলায় অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করতে গিয়ে মাটিচাপায় মারা যায় ৭ শ্রমিক। এরপর কালাইরাগ, বিছনাকান্দি, জাফলং ও লোভাছড়া পাথর কোয়ারিতে মৃত্যুর মিছিল বাড়ে। এতে প্রায় ২০ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এই মৃত্যুর ঘটনা নাড়া দেয়ে সিলেটবাসীকে। গোটা দেশের মধ্যে আলোচনায় আসে সিলেটের পাথর কোয়ারিগুলো। সর্বশেষ গত নভেম্বরের শেষদিকে লোভাছড়ায় ৬ মাদরাসা ছাত্র পাহাড় ধসে মারা গিয়েছিল। এরপর থেমে নেই ঝুঁকিপূর্ণভাবে পাথর উত্তোলন। কয়েকটি রাজনৈতিক খুনের ঘটনায় কাতর হয়েছেন সিলেটবাসী। এ বছর ওসমানীনগরের উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গোলাগুলিতে দু’জন নিহত হন। আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর মধ্যে ঘটনার কারণে তারা নিহত হয়েছিলেন। ১৭ই জুলাই সিলেটের বিয়ানীবাজারে প্রতিদ্বন্দ্বী গ্রুপের নেতাদের গুলিতে নিহত হন বিয়ানীবাজার ছাত্রলীগ কর্মী খালেদ আহমদ লিটু, ২২শে জুলাই নগরীর মিরাবাজারে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হন মাহবুবুর রহমান রিজভি নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী। ১৩ই সেপ্টেম্বর প্রতিপক্ষ গ্রুপের হাতে নিহত হন ছাত্রলীগ সুরমা গ্রুপের কর্মী জাকারিয়া মো. মাসুম। ১৫ই অক্টোবর নগরীর টিলাগড়ে ছাত্রলীগের সেক্রেটারি গ্রুপের হাতে নির্মমভাবে খুন হন ছাত্রলীগ কর্মী ওমর আহমদ মিয়াদ। বছরের সর্বশেষ আলোচিত ঘটনার কেন্দ্রবিন্দু ছিল সিলেটের সিটি করপোরেশন। বছরের শুরু থেকেই সিটি করপোরেশন সরব ছিল। এর কারণ ৪ঠা জানুয়ারি কারাগার থেকে মুক্তি পান আরিফুল হক চৌধুরী। এরপর তিনি নগর পিতার আসনে বসে উন্নয়ন কাজ শুরু করেন। বছরের শেষদিকে ১৯শে ডিসেম্বর সিটি করপোরেশনের মহিলা কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনের হাতে লাঞ্ছিত হন সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান। আর মার্চ মাসে ঘটেছিল আতিয়া মহলের ঘটনা। আতিয়া মহলের বাইরে জঙ্গি বোমা হামলায় আইনশৃঙ্খলার বাহিনীর তিন সদস্য নির্মমভাবে নিহত হয়েছিলেন। সিলেটে বছরজুড়ে আলোচনায় ছিলেন শিল্পপতি রাগিব আলী। তারাপুর চা বাগানের মামলাসহ কয়েকটি ঘটনায় তিনি কারাবন্দি হয়েছিলেন। তার মালিকানাধীন পত্রিকা সিলেটের ডাকও বন্ধ হয়ে যায়। তবে সব কিছু সামলে রাগিব আলী অবশেষে পুত্র আবদুল হাইসহ জামিনে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। তিনি কারাগার থেকে বের হওয়ার কিছুদিনের মাথায় তার মালিকানাধীন পত্রিকা সিলেটের ডাকও পুনরায় বাজারে আসে। সিলেটের ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজের ছাত্রাবাস পোড়ানোর ঘটনায় ৩২ জনের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি। ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের বিরোধের কারণেই মূলত এ নাশকতা চালানো হয়েছে বলে তদন্তে জানা যায়।
আর তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশের পরপরই সিলেটজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছিল। চলতি বছরের ২৭শে অক্টোবর প্রায় ৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরের উদ্বোধন হয়। ২৩ দশমিক ৭২ একর ভূমির মধ্যে ৬৯ কোটি ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরের উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এটি সিলেটের একমাত্র স্থলবন্দর। এ কারণে এই বন্দরকে ঘিরে ব্যবসায়ীরা খুশি। তবে খুশির খবর ছিল শীতলপাটির বিশ্ব জয়। ৬ই ডিসেম্বর ইউনেস্কোর তালিকায় স্থান পায় সিলেটের শীতলপাটি।
সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে শীতলপাটিকে এ স্বীকৃতি দেয়ায় সিলেটের মানুষের মধ্যে আনন্দ দেখা দেয়। বছরের প্রায় ৬ মাস বন্যায় বিপর্যস্ত ছিল সিলেট। এই বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে এখনো ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি সিলেট। এবারই প্রথম দীর্ঘস্থায়ী বন্যা দেখলো সিলেটবাসী। সুনামগঞ্জের হাওরের একমুঠো ফসল ঘরে উঠেনি। সূত্র-মানবজনি

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares