দক্ষিন সুরমায় সানর মিয়ার কলোনীতে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগ

প্রকাশিত: 5:09 PM, November 8, 2017

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের দক্ষিন সুরমা উপজেলার ২নং বরইকান্দি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য জৈনপুরস্থ সানর মিয়ার কলোনী আবরও স্বরূপে প্রত্যাবর্তন করেছে। এলাকাবাসীর প্রতিরোধের মুখে বিগত দু’তিন বছর কিছুটা স্থগিত হলেও সাম্প্রতিক সময়ে নানান অপরাধ কর্মকান্ড আবারো ঢালপালা মেলেছে এই কলোনী জুরে। মদ জুয়ার পাশাপাশি এই কলোনীতে অসামাজিক কার্যকলাপ সংঘটিত হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে গত সোমবার (০৬ নভেম্বর) এলাকাবাসী স্বাক্ষরিত দক্ষিন সুরমা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগে প্রকাশ, ৮নং ওয়ার্ড জৈনপুরস্থ সানর মিয়ার কলোনীতে মাদক দ্রব্য, জুয়া খেলা ও অসামাজিক কার্যকলাপ চলে আসছে তার কলোনীতে। বর্তমান জুয়ার আসরটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন সানর মিয়া ও তার দুই ছেলে লিমন আহমদ ও মহন আহমদ। এই অসামাজিক কর্মকান্ডে কেউ বাঁধা দিলে তাকে নানানভাবে হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে সে ও তার বাহিনী। শুধু তাই নয় সানর মিয়া ও তার বাহিনীর নেতৃত্বে নারীদের দিয়ে দেহ ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে এলাকার যুব সমাজকে ধ্বংসের মুখে টেলে দিচ্ছে এ কলোনী।

সরেজমিনে জানা যায়, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) খেলাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় জুয়াড়ীদের পাশাপাশি বহিরাগত জুয়াড়ীদের নিয়ে এক জুয়ার মহোৎসবে মেতে উঠেছে কলোনীটির ভিতরে। যেখানে প্রতিদিন একশত টাকা থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা পর্যন্ত জুয়া খেলা হয়ে থাকে। এছাড়াও তাস, লুডু টিকটিকি (জুয়া) ও শিলং ‘তীর’ নামক জুয়া খেলা চছে আসছে সানর মিয়ার বাহিনী। এই কলোনী কেন্দ্রীক অপরাধ কর্মকান্ডের আবারো অতৃষ্ট হয়ে উঠলেও প্রতিবাদ কররা সাহস পাচ্ছেন না স্থানীয় এলকাবাসী।

অতিতে সানর মিয়ার কলোনীতে জুয়ার আসরসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করে উল্টো তার ও তার পেটোয়া বাহিনীর রোষানলে পতিত হয়েছেন অনেকেই। মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা-হামলায় হয়রানী হতে হয়েছে অনেকেরই। এমনকি ব্যবসা প্রতিষ্টানেও হামলা করে ভাঙচুর করেছে সে ও তার বাহিনী এমন অভিযোগও উঠেছে সানর মিয়ার বিরুদ্ধে।

অতিতে স্থানীয়, আঞ্চলিক পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পরিপ্রেক্ষিতে দক্ষিন সুরমা থানা তার কলোনীতে অভিযান চালিয়ে জুয়ার ষড়নজামাধিসহ জুয়াড়ীদের আটক করে দক্ষিন সুরমা থানা পুলিশ।

তাদের এহেন অপকর্মের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নিতে প্রশাসনের কাছে জোর দাবী করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..