প্রচ্ছদ

গোয়াইঘাটে সাঙ্গ হলো তিন দিন ব্যাপী গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা

২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৯:৩৩

crimesylhet.com

Sharing is caring!

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি :: বিলুপ্ত প্রায় গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়ার দৌড় (ঘোড়দৌড়) প্রতিযোগিতা। প্রতি বৎসরের ন্যায় সিলেটের যে কয়েক টি উপজেলায় ঘোড়ার দৌড় প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হয় তার মধ্যে একটি সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা। প্রতিবারের ন্যায় এবারও ঐহিহ্যের টানে ঝাঁক ঝমকপূর্ণ ভাবে তিন দিন ব্যাপী এ ঘোড়া মেলা অনুষ্টিত হল। গত ১৮ফেব্রæয়ারী সোমবার বিকেল উপজেলার আলীরগাঁও ইউনিয়নের খাষমৌজা মাঠে দৌড় শুরু হয় এবং গতকাল বুধবার দুপুর ১২টায় একই মাঠে ফাইনাল দৌড় ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্টান অনুষ্ঠিত হয়। অর্ধ শতাধিক ঘোড়ার সমন্বয়ে দৌড় সমাপ্ত হয় এবং সর্বশেষ ফাইন্যালে বাংলার সুলতান, শুভা সুন্দর এবং হৃদয় বাংলা নামক তিনটি ঘোড়া অংশ গ্রহন করে। এতে ফাইনাল দৌড়ে বাংলার সুলতান ১ম স্থান, শুভা সুন্দর ২য় স্থান এবং হৃদয় বাংলা তৃতীয় স্থান অর্জন করে। পরিচালনা কমিটির সভাপতি শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাব’র সভাপতি মনজুর আহমদ, উপজেলা ভাইস চেয়রম্যান পদপ্রার্থী ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রব্বানী সুমন, বিশিষ্ট সমাজসেবী সিরাজুল ইসলাম সিরাই, বিলাল উদ্দিন, হাজী খলিলুর রহমান, আতাউর রহামন, আবু হানিফ, আব্দুর রহমান, বিলাল উদ্দিন, এখালাছুর রহমান, মকবুল হোসেন, মাসুক আহমদ, শমছুল হক প্রমুখ। এতে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন সিজাজ উদ্দিন, মকবুল হোসেন। সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় গোয়াইনঘাট উপজেলার আলীরগাঁও ইউনিয়নের খাষ মৌজা মাঠে বারহাল এলাকাবাসী কর্তৃক আয়োজিত প্রতিযোগিতায় সিলেট, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন উপজেলা হতে অর্ধ-শতাধিক ঘোড়া, দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করে। বিভিন্ন ইভেন্টের মাধ্যমে দৌড়ে অংশ গ্রহন করে তারা পর্যায়ক্রমে তারা ফাইন্যাল খেলায় অংশ গ্রহন করে। প্রতিটি ঘোড়ার সাথে ৩থেকে ৪জন লোক থাকে। সকল লোকজন’র থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা দিতে হয় আয়োজককারীদের। প্রতিদিন মাঠের চার পাশে অর্ধ-লক্ষাধিক মানুষের সমাগম গঠে। এতে নারী পুরুষ যুবক শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোকজন উপস্থিত হয়। আয়োজক কমিঠির সভাপতি শফিকুর রহমান জানান ঐতিহ্যবাহী এ মেলা আমাদের অঞ্চল হতে দিন দিন বিলুপ্ত হতে চলছে। আমরা প্রতি বছর আলীরগাঁও অঞ্চলের লোকজনদের অনুমতি নিয়ে একটি মাঠ নির্বাচন করি। প্রশাসনের উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে খেলাটি পরিচালনা করি। ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতার আয়োজন করাটা অনেকটা কষ্ট সাদ্য হলেও কোন প্রকার প্রচার প্রচারনা ছাড়াই বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া ঐহিয্যবাহী খেলাটি আয়োজন করি। এক নজর ঘোড় দৌড় প্রতিযোগীতা দেখতে হাজার হাজার নারী পুরুষ অংশ গ্রহন করে খেলার মাঠে। সরাসরি প্রচার প্রচারনা করে খেলাটি আয়োজন করা হলে মাঠে কয়েক লক্ষ্য লোক সমাগম ঘটত এমনকি বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল হতে ঘোড়া প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করত। এছাড়া কোন প্রকার অপ্রিতিকর ঘটনা ছাড়া খেলাটি সমাপ্ত করায় এলাকাবাসীকে এবং খেলায় আগত দর্শকবৃন্দকে কমিটির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

February 2019
S S M T W T F
« Jan   Mar »
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
232425262728  
shares