বিশ্বনাথে হামলা-পাল্টা হামলার অভিযোগ, আহত ৪

প্রকাশিত: ৩:১১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০১৮

বিশ্বনাথে হামলা-পাল্টা হামলার অভিযোগ, আহত ৪

Sharing is caring!

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে হামলা-পাল্টা হামলায় উভয়পক্ষের নারীসহ অন্তত ৪জন আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের শেখেরগাঁও গ্রামের মছব্বির আলী ও আব্দুল তুহিন কালামের লোকজনের মধ্যে এঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন-শেখেরগাঁও গ্রামের মাহমদ আলীর ছেলে দিলোয়ার হোসেন (২৬) আরাদন আলীর স্ত্রী সিতারা বেগম (৪৫), সিতারা বেগমের ছেলে ইমামুল হোসেন (২০) ও প্রতিপক্ষ প্রবাসী আবুল কালামের (সমুজ আলী)  ছেলে আব্দুল তুহিন কালাম (২৩)। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে, এঘটনায় পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, শেখেরগাঁও গ্রামের মছব্বির আলী ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবুল কালামের (সমুজ আলী)  ছেলে আব্দুল তুহিন কালামের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এরজের ধরে গতকাল বুধবার উভয় পক্ষের মধ্যে পাল্টা-পাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এতে নারীসহ ৪জন আহত হন।
আহত দিলোয়ার হোসেনের সাংবাদিকের কাছে দাবি করেন, প্রতিপক্ষ যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবুল কালামের (সমুজ আলী) ছেলে আব্দুল তুহিন কালাম তার সহপাঠি নিয়ে একই গ্রামের মছব্বির আলীর বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। এসময় পিস্তল দিয়ে গুলি করলে তাদের গুলিবিদ্ধসহ ৩জন আহত হন বলে তিনি দাবি করেন।
আব্দুল তুহিন কালাম তার বিরুদ্ধে গুলি করা ও হামলার অভিযোগ সঠিক নয় দাবি করে সাংবাদিকের বলেন, মছব্বির আলীর ভাতিজা দিলোয়ারসহ বেশ কয়েকজন আমাদের বাড়িতে হামলা করে। তিনি বলেন, আমার বাড়ির গাছ ও পুকুরের মাছ চুরি করে নিয়ে যায় ও আমার বাড়ির কাজের লোক রাখতে পারিনা তাদের যন্ত্রনায় আমি অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। তিনি আরও বলেন, তাদের বিরুদ্ধে বিশ্বনাথ থানায় একটি মামলা রয়েছে। এই মামলার জেরধরে গতকাল বুধবার আমার বাড়িতে তারা হামলা চালায়।
এব্যপারে বিশ্বনাথ থানার এসআই মহব্বত হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি, কিন্তু কোনো গুলাগুলির আলামত পাওয়া যায়নি। তবে মামলা দেয়া হলে  ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares