আঁধার কার্ডের অনিয়ম ফাঁস করে দেয়ায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এফআইআর

প্রকাশিত: 12:38 PM, January 13, 2018

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : ভারতে ১০০ কোটি আঁধার কার্ড নিয়ে অনিয়মের গোপন তথ্য ফাঁস করে দেওয়ায় সাংবাদিক রচনা খাইরার বিরুদ্ধে সাধারণ অভিযোগ (এফআইআর) দায়ের করা হয়েছে।

দ্য ট্রিবিউন পত্রিকার সাংবাদিক রচনা খাইরার অনুসন্ধানে উঠে এসেছে, আঁধার কার্ডের নম্বর প্রদানকারী ইউনিক আইডেনটিফিকেশন অথোরিটি অব ইন্ডিয়ায় (ইউআইডিএআই) প্রত্যেক ব্যক্তির ডেমোগ্রাফিক ডেটাতে অবৈধভাবে প্রবেশ করা যাচ্ছে। অবৈধ এই প্রবেশাধিকারের সুযোগ অর্থের বিনিময়ে বিক্রি করা হচ্ছে।

এফআইআরের পর প্রতিক্রিয়ায় রচনা খাইরা বলছেন, অনুসন্ধানের মাধ্যমে তিনি অনেক তথ্য খুঁজে পেয়েছেন। এর খুব সামান্যই প্রকাশিত হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে।

সাংবাদিক রচনা আরও আশা করেন, ভারত সরকার আঁধার কার্ড ইস্যুতে অনিয়মের ফাঁকফোকরগুলো খুঁজে বের করবে এবং তাঁর প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে রচনা বলেন, ‘এই এফআইআরকে আমি নিজের অর্জন হিসেবে দেখছি। আমার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অন্তত কিছু পদক্ষেপ তো নেওয়া হয়েছে।’

রচনা আরও বলেন, তাঁর প্রকাশিত খবরের জন্য তিনি ব্যাপক সমর্থন পেয়েছেন। কেবল চণ্ডীগড় গণমাধ্যম নয়, দিল্লির গণমাধ্যম এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমও পাশে থাকবে বলে তাঁকে আশ্বস্ত করেছে। এই খবর গণমাধ্যমগুলোয় গুরুত্ব পেয়েছে। দ্য ট্রিবিউন সব ধরনের আইনি সহায়তা দিচ্ছে।

তবে ইউআইডিএআই তাদের বায়োমেট্রিক ডেটাবেইসে কোনো ধরনের অনিয়ম থাকার কথা অস্বীকার করেছে।

বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার সম্পাদকদের সংস্থা দ্য এডিটরস গিল্ড অব ইন্ডিয়া সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এ ধরনের মামলার নিন্দা জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে দ্য এডিটরস গিল্ড অব ইন্ডিয়া জানায়, জনস্বার্থে একজন সাংবাদিকের করা অনুসন্ধানকে এভাবে চোখ রাঙানো হচ্ছে। এটা অন্যায়। অবিবেচনামূলক। গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর এটা সরাসরি হামলা।

ট্রিবিউন এক বিবৃতিতে জানায়, বৃহত্তর জনস্বার্থে এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে। ট্রিবিউন সুসাংবাদিকতার চর্চা করে। দায়িত্বশীল আচরণে বিশ্বাসী।

ট্রিবিউনের প্রধান সম্পাদক (এডিটর ইন চিফ) হরিশ খায়রে এক বিবৃতিতে বলেন, আইনিভাবে তাঁরা বিষয়টি মোকাবিলা করবেন। খবর: এনডিটিভি, অল ইন্ডিয়ার।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..