শীত মৌসুমের বিদায়ী বৃষ্টিতে কাদায় নাকাল, ভোগান্তিতে নগরীর জনসাধারণ

প্রকাশিত: ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৯

শীত মৌসুমের বিদায়ী বৃষ্টিতে কাদায় নাকাল, ভোগান্তিতে নগরীর জনসাধারণ

আজমল আলী :: সিলেটে হয়ে গেল শীত মৌসুমের বিদায়ী বৃষ্টি। বজ্রবৃষ্টির সঙ্গে শিলাবৃষ্টি হয়েছে বিভিন্ন স্থানে। গতকাল রোববার সকালে বজ্রবৃষ্টির সঙ্গে বিপুল পরিমাণ শিলাবৃষ্টিও হয়েছে। অন্যান্য দিনের তুলনায় তাপমাত্রাও খানিকটা হ্রাস পেয়েছে। নগরীসহ বিভিন্ন স্থানে সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টি আর ঠান্ডায় জনজীবনেও পড়েছে প্রভাব।

নগরীর প্রধান সড়কগুলোতে অন্যান্য দিনের তুলনায় যানবাহন কম চলতে দেখা গেছে। জনজীবনে নেমে আসে চরম ভোগান্তি। এছাড়া, বৃষ্টির কারণে নগরীতে বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় কাদা জমে থাকছে। নগরীর ব্যস্ততম রাস্তাঘাটের অবস্থা ছিলো নাজুক। বৃষ্টি যেখানে সেখানে বেশির ভাগ কাদার সৃষ্টি হয়েছে।

নগরীর বিভিন্ন রাস্তা ও ড্রেইনের উন্নয়ন কাজ চলার কারণে আটকে পানি আর কাদায় একাকার হয়ে পড়েছে সড়কের বেশির ভাগ এলাকা। এদিকে উন্নয়নমূলক’ কাজের জন্য নগরীর জিন্দাবাজারের রাস্তা কাটা। পাশেই ছিলো মাটি আর বালু। প্রথম বৃষ্টির পানিতে পুরো রাস্তায় কাদা জমে যায়। কাদার ওপর দিয়ে হাঁটতে অথবা গাড়ি চালাতে মারাত্মক সমস্যায় পড়তে হয় পথচারীদের। ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে যানবাহন। যানবাহন অথবা পায়ে হেঁটে চলাচল করতে গিয়ে অবর্ণনীয় ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন স্থানীয় জনসাধারণ।

শীতের প্রথম থেকে সড়কের কাজ শুরু হলেও এখন পর্যন্ত সকল কাজ সমাপ্ত না হওয়ায় ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে জনসাধারণ। যার ফলে নগরীর সচেতন জনসাধারণের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। একইসাথে অনেকস্থানে পানি জমে থাকতে দেখা গেছে।

এতে যাত্রীদের দূর্ভোগ বেড়ে যায়। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী-কর্মজীবীসহ নানা শ্রেণি- পেশার লোকজনকে সইতে হয়েছে দূর্ভোগ। যাত্রী ও চালকরা জানান, প্রথম বৃষ্টির ফলে গতকাল রোববার নগরীর জিন্দাবাজার, আম্বরখানা, লামাবাজার, বন্দরবাজারসহ বেশ কিছু সড়কে যানজট লেগে থাকে দিনভর। একই অবস্থা ছিলো কালিঘাট, মহাজনপট্টি এলাকায়। এতে করে পথচারীদের মতো দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের।

এ ছাড়া, বৃষ্টিতে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে কাদার জলাবদ্ধতা। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির পর সড়কে জমে যায় পানি। সাথে ছিলো কাদা। এতে ভোগান্তিতে পড়েন পথচারীরা। কাদার কারণে নগরীর অনেক এলাকার সড়কের অবস্থা আরো ভয়াবহ। এই সুযোগে বেড়ে যায় রিকসার ভাড়া। যাত্রীরা পড়েন বিপাকে। বিদায় অনেক পথচারীকে ক্ষোভ ও বিরক্তি প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

ভুক্তভোগীরা জানান, নগরীতে যানজটের সাথে নতুন করে যুক্ত হয়েছে কাদা আর ধুলা। একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় জমে যায় কাদা। আর রোদ উঠলে ধুলা। গতকাল বৃষ্টির কারণে বেশির ভাগ এলাকার রাস্তায় কাদা জমে যায়। নগরী বেশির ভাগ রাস্তার এখন এই একই দশা। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পথচারীরা।

Sharing is caring!

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

February 2019
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
232425262728  

সর্বশেষ খবর

………………………..