সুনামগঞ্জের তক্ষক পাচারকারী দলের দু’প্রতারক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০১৮

Sharing is caring!

নিজস্ব প্রতিনিধি : কোটি টাকা লাভের পথ দেখানো স্বপ্নদ্রষ্টা দু ’প্রতারককে সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শনিবার বিকেলে ডিবি পুলিশ গ্রেফতারকৃত জেলার বিশ্বম্ভরপুরের গোলগাঁওয়ের আবদুর রহিমের ছেলে মিরাজুল ইসলাম (৩২) ও একই গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে তারা মিয়া (৪৩) কে বিশ্বম্ভরপুর থানায় সোপর্দ করার পর মামলা দায়ের করেছে। ’
জানা গেছে, বন্যপ্রাণী তক্ষক ক্রয়ে রাতারাতি কোটি টাকা লাভের স্বপ্নদ্রষ্টা জেলার বিশ্বম্ভরপুর সীমান্তের তক্ষক পাচারকারী দলের দু’প্রতারক গোলগাঁওর তারা মিয়া ও মিরাজুলকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম কৌশলে শুক্রবার মধ্যরাতে ক্রেতা সেজে গ্রেফতার করে।’
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে নেতৃত্বকারী ইনপেক্টর কাজি মো. মুক্তাদির শনিবার রাতে জানান, গ্রেফতারকৃতরা দেশের বিভিন্ন এলাকার লোকজনকে ইতিপুর্বে বন্যপ্রাণী তক্ষক ক্রয়ে রাতারাতি কোটি টাকা লাভের প্রলোভন দেখিয়ে আরেকদল তক্ষক পাচারকারীদের সাথে লেনেদেনের সুযোগ তৈরী করে দিয়ে তক্ষক ক্রয়-বিক্রয় ও পরবর্তীতে অহেতুক সীমান্তের বিজিবি কিংবা থানা পুলিশের হাতে তক্ষক ধরার পড়ার নামে ফাঁদে ফেলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিত তারা।’পরবর্তীতে প্রতারিত ক্রেতাদের মামলার ভয়-ভীতি দেখিয়ে তক্ষক বিক্রির নামে হাতিয়ে নেয়া লাখ লাখ টাকা ভাগ পেত প্রতারক মিরাজুল ও তারা মিয়া।’
বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মোল্লা মো. মনির হোসেন শনিবার রাতে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আদালতের মাধ্যমে বিকেলেই ওই দু’ প্রতারককে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares