আওয়ামী লীগের আসন দখলে নিতে তৎপর বিএনপি

প্রকাশিত: ৬:২৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৭

Sharing is caring!

চয়ন চৌধুরী, সিলেট ও জাকির হোসেন, গোয়াইনঘাট : প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যময় পাথররাজ্য হিসেবে পরিচিত সীমান্তবর্তী তিন উপজেলা গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কোম্পানীগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৪ আসন। চলতি মেয়াদ নিয়ে পাঁচবার এ আসনে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের ইমরান আহমদ। এ কারণে আওয়ামী লীগের আসন হিসেবে বিবেচিত এই আসন। বিএনপি এখানে সর্বশেষ নির্বাচিত হয় ২০০১ সালে, সংসদ সদস্য হন দিলদার হোসেন সেলিম। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জয়ী হন এখান থেকে।
২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের ইমরান আহমদ আসনটি বিএনপির কাছ থেকে পুনরুদ্ধারের পর দশম সংসদ নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীকেও পরাজিত করেন। সঙ্গত কারণে আগামী নির্বাচনেও তিনি মনোনয়ন পাবেন বলে মনে করছেন অনেকে। এ অবস্থায় তার সঙ্গে ভোটযুদ্ধের প্রস্তুতি নেওয়ার তৎপরতা চালাচ্ছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন সেলিমের অনুসারীরা।
শুধু এ দু’জন নন- নিজ নিজ দলে মনোনয়ন পাওয়ার প্রতিযোগিতায় নেমেছেন আরও চার নেতা। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমদ দশম সংসদ নির্বাচনে দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন। তবে আগামীতে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন তিনি। গতবারের মতো এবারও দলের মনোনয়ন চাইবেন গোয়াইনঘাট ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হকও।
বিএনপি থেকে এ আসনে মনোনয়নের তালিকায় আরও রয়েছেন গোয়াইনঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল হাকিম চৌধুরী। প্রায় অর্ধশত মামলা মাথায় নিয়ে কয়েক বছর ধরে যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপির সহ-স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান জামান দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। নির্বাচনের আগে অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি হলে তিনি দেশে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন তার অনুসারীরা। দশম সংসদ নির্বাচন বর্জনের আগে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন আবদুল হাকিম চৌধুরী ও অ্যাডভোকেট সামসুজ্জামান জামান।
অতীত সাফল্যের ধারাবাহিকতায় মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে আগামী নির্বাচনেও ইমরান আহমদ এগিয়ে থাকবেন বলে মনে করছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। এ প্রসঙ্গে ইমরান আহমদ বলেছেন, দলের হাইকমান্ড অতীতে তাকে মূল্যায়ন করে বার বার মনোনয়ন দিয়েছেন। আর তৃণমূল নেতাকর্মী এবং সাধারণ মানুষও ভালোবেসে তাকে নির্বাচিত করে তাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। তিনি সেই মর্যাদার সম্মান দিতে সব সময় গরিব-মেহনতি মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করছেন। কখনও অনিয়ম-দুর্নীতি করেননি। ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। তাই জনগণের ভালোবাসায় আগামীতেও তিনি বিজয়ী হবেন বলে আশাবাদ প্রকাশ করে ইমরান আহমদ বলেছেন, জনগণ অতীতের মতো আগামীতেও তার কাজের মূল্যায়ন করবে।
যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় শ্রমিক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ফারুক আহমদ বলেছেন, জনগণ এখন চায় নতুনত্ব। চায় ইয়ং জেনারেশনের নেতৃত্ব। তাই সব দিক বিবেচনা করে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে মনোনয়ন দেবেন বলে তিনি বিশ্বাস করছেন। ফারুক আহমদ আরও বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্যই তিনি গত নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। তবে এবার দলীয় মনোনয়ন না পেলে তিনি আর আগামী নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন না। দল যাকে মনোনয়ন দেবে, তার হয়েই দলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রমে অংশ নেবেন।
গোয়াইনঘাট উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যক্ষ ফজলুল হক বলেছেন, মনোনয়ন না পেয়েও তিনি গত নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন। জনগণের স্বার্থে তিনি এবারও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন। কোনো কারণে আগামী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেলেও তিনি অতীতের মতো দলীয় প্রার্থীর পক্ষেই নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম চালিয়ে যাবেন।
বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন সেলিম জানিয়েছেন, দলের দুর্দিনে তিনি মাঠ ছেড়ে যাননি। এখনও দলের জন্যই কাজ করে চলেছেন। তিনি বলেছেন, এমপি থাকার সময় তিনি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। এ জন্য নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ ভোটাররাও তাকে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাইছেন। মানুষের সেবা ও এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আবারও দলের মনোনয়ন চাইবেন তিনি। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও তাকেই মনোনয়ন দেবেন বলে তিনি মনে করছেন।
বিএনপির জেলা সহসভাপতি আবদুল হাকিম চৌধুরী জানান, তিনি পরপর দু’বার আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে পরাজিত করে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমানে এ আসনের ভোটাররা তাদের সেবা করার জন্য তাকে দলীয় মনোনয়ন চাওয়ার প্রেরণা জোগাচ্ছেন। কেন্দ্র থেকেও তাকে এই আসনে কাজ করার কথা জানানো হয়েছে। তাই তিনি জনগণ ও কেন্দ্রের প্রত্যাশা পূরণের জন্য আবারও মনোনয়ন চাইবেন। তার বিশ্বাস, তিনি মনোনয়ন পাবেন। বিএনপি তাকে নিরাশ করবে না।
এদিকে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচনে লড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান। তিনি বলেন, পার্টি চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের নির্দেশে তিনি এলাকায় কাজ করে যাচ্ছেন। এখন তিনি পার্টিকে সংগঠিত করছেন।সমকাল

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

December 2017
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares