প্রেমের টানে ফিলিপিনো তরুণী কিশোরগঞ্জে, মহাধুমধামে বিয়ে

প্রকাশিত: ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০১৯

প্রেমের টানে ফিলিপিনো তরুণী কিশোরগঞ্জে, মহাধুমধামে বিয়ে

ভাষা-সংস্কৃতি, ধর্ম-বর্ণসহ নানা সংস্কার ও ভেদাভেদ ভুলে শুধু প্রেমের টানে বাংলাদেশে ছুটে এসেছেন এবার ফিলিপিনো তরুণী। শুধু তাই নয়, ফোরেন্স জন্মভূমি ছেড়ে, তার ধর্ম ত্যাগ করে কিশোরগঞ্জে তার প্রেমিক রাজনকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়েও করেছেন।

ফিলিপিনো ওই তরুণীর নাম এনালিনি রোজালেস ফ্লোরেস। তিনি ফিলিপাইনের ভিনগেট প্রদেশের ভাগিউ সিটির সেন্ট্রাল ফেয়ারভিউ ভিলেজের বাসিন্দা পাপিনিয়ামো সাভান্ডাল ফ্লোরেস এবং ক্রিসটিটা রোজালেস ফ্লোরেস দম্পতির কন্যা।

অন্যদিকে তার প্রেমিকের নাম মো. জহিরুল ইসলাম রাজন। সে কিশোরগঞ্জ শহরের পুরাতন কোর্ট রোডের হাজী মো. আব্দুর রশিদের ছেলে।

জানা গেছে, এনালিনি রোজালেস ফ্লোরেস ফিলিপাইনের ভিনগেট প্রদেশের ভাগিউ সিটির সেন্ট্রাল ফেয়ারভিউ ভিলেজ থেকে গত ২৭ জুন বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের পুরাতন কোর্ট রোডের রাজনের বাসায় চলে আসেন।

এরপর প্রেমিক মো. জহিরুল ইসলাম রাজনের পরিবারের সম্মতিতে শুক্রবার (৫ জুলাই) মহাধুমধামে দুজনের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার (৫ জুলাই) দুপুরে শহরের অতিথি কমিউনিটি সেন্টারে বিবাহোত্তর বৌ-ভাত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

কিশোরগঞ্জে আসার ফোরেন্স ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। পরে এনালিনি রোজালেস ফ্লোরেস এর নাম পরিবর্তন করে জান্নাতুল ফেরদৌস জান্নাত রাখা হয়। এছাড়া ইসলামী বিধান মতে তাদের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

কিশোরগঞ্জের ছেলের সাথে ফিলিপিনো মেয়ের বিয়ের ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে রাজনের সাথে এনালিনির প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

Sharing is caring!

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

………………………..