‘মুসলিম নারীদের ধর্ষণ করুক হিন্দুরা’, ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্য করায় বিজেপি নেত্রী বহিষ্কার

প্রকাশিত: 5:59 PM, July 1, 2019

‘মুসলিম নারীদের ধর্ষণ করুক হিন্দুরা’, ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্য করায় বিজেপি নেত্রী বহিষ্কার

Sharing is caring!

সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্য এবং উসকানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিজেপি নেত্রী সুনীতা সিং গৌড়ের বিরুদ্ধে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে নারী মোর্চার নেত্রী নেত্রী সুনীতা সিং গৌড়কে বহিষ্কার করেছে বিজেপি। নিজের ফেসবুক ওয়ালে সুনীতা সিং লিখেছেন, ‘দেশকে রক্ষা করার জন্য হিন্দু ভাইদের উচিত মুসলিমদের ঘরে ঢুকে নারীদের ধর্ষণ করা।’

সুনীতা সিংয়ের সেই ফেসবুক পোষ্ট

টুইটারে বিজেপি নেত্রীর এই বক্তব্য ভাইরাল হয়েছে। আর এই বক্তব্যের বিরুদ্ধে প্রবল সমালোচনা করেছেন নেটিজেনরা।

সুনীতা সিং গৌড় বিজেপি নারী মোর্চার রামকোলা মণ্ডলের প্রেসিডেন্ট।

কংগ্রেস সমর্থকরা তো বটেই অভিনেত্রী স্বরা ভাস্করও ওই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন। প্রথমে বিজেপির পক্ষে জানানো হয়, সুনীতা সিং গৌড়ের সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজেপির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করার জন্য স্বরা ভাস্করকে কটাক্ষ করেন বিজেপি নারী মোর্চার সর্বভারতীয় সভানেত্রী বিজয়া রাহাতকর।

এদিকে, প্রথমে অস্বীকার করলেও, পরে ভোল পাল্টান বিজয়া। দলের অভ্যন্তরীন তদন্তের পর দেখা যায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় যে নারী মুসলিমদের ধর্ষণের পক্ষে বক্তব্য দিচ্ছেন তিনি বিজেপির রামকোলা মণ্ডল নারী মোর্চার সভাপতি। এরপর পদক্ষেপ নেয় গেরুয়া শিবির। বহিষ্কার করা হয় নারী মোর্চার ওই নেত্রীকে।

বিজেপি নারী মোর্চার নেত্রী বিজয়া রাহাতকর নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে ওই বহিষ্কারের বিষয়টি জানিয়েছেন।

স্বরা ভাস্করকে ট্যাগ করে তিনি বলেন, নিশ্চিন্তে থাকুন, বিজেপি নারী মোর্চা এমন কোনও মন্তব্যকে সমর্থন করে না যা ঘৃণা ছড়ায়। এই নারীকে ইতিমধ্যেই বহিষ্কার করা হয়েছে।

এদিকে, সময়োচিত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য গেরুয়া শিবিরকে ধন্যবাদ জানান স্বরা।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares