জৈন্তাপুরের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে: ৪৫টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

প্রকাশিত: ৩:৪২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৮

Sharing is caring!

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার পরিস্থিতি এখন প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানিয়েছেন জৈন্তাপুর থানার ওসি। তবে গত রাতে সেখানে ৪০টির বেশি বাড়িতে অগ্নিসংযোগের খবর পাওয়া গেছে।
সোমবার রাত ১১টার দিকে বাংলাবাজার আমবাড়ি এলাকায় ওয়াজ মাহফিল নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে হরিপুর মাদ্রাসার ছাত্র মোজাম্মেল হোসেন নিহত হন। আহত হন প্রায় অর্ধশতাধিক।
রাত আড়াইটা পর্যন্ত চলা সংঘর্ষের এক পর্যায়ে উপজেলার ২নং জৈন্তাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এখলাছুর রহমানের বাড়সহ আমবাড়ি, ঝিঙ্গাবাড়ি ও কাঠালবাড়ি নামক তিনটি গ্রামের প্রায় ৪৫টি বাড়িতে অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটেছে।
এসব ঘটনায় আরও প্রায় ১০/১১ জন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয় কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান।
সকালেই সিলেটের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (দুপুর সাড়ে ১২টা) তারা ক্ষয়-ক্ষতি নিরুপন করছেন। ক্ষতিগ্রস্ত ৪৫টি বাড়ির তালিকা করা হয়েছে এবং ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের জন্য প্রয়োজনীয় ত্রাণ সরবরাহের উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে।
জৈন্তাপুর থানার ওসি খান মোহাম্মদ মঈনুল জাকির জানিয়েছেন, পরিস্থিতি পুলিশের সম্পুর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখনও কোন মামলাদায়ের হয়নি। তবে দোষীদের আইনের আওতায় আনতে তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য, ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন সুন্নী মতাদর্শের লোকজন। মাহফিল চলাকালে রাত ১১টার দিকে ওয়াহাবী মতাদর্শের লোকজন হামলা চালালে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই এ সংঘর্ষ বৃহৎ আকার ধারণ। দু\’পক্ষের হাজারো মানুষ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। রাত ২টার দিকে মুসল্লীরা সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করে রেখেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

February 2018
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
2425262728  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares