কৃষাণ-কৃষাণী সাইমন-মাহি

প্রকাশিত: 9:03 PM, January 6, 2020

কৃষাণ-কৃষাণী সাইমন-মাহি

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : কিশোরগঞ্জের একটি গ্রামে যতদূর চোখ যায় একের পর এক ধানক্ষেত। কিছু জমি প্রস্তুত করা হচ্ছে ধানের চারা রোপণের জন্য। এরই মধ্যে এক জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে দেখা গেল চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে। কাদামাটির জমিতে একসঙ্গে ধানের চারা রোপণ করছেন তারা। দেখে বোঝার উপায় নাই যে তারা ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী। আসলে সিনেমার চরিত্রের প্রয়োজনে কৃষাণ-কৃষাণী হয়েছেন তারা।

ছবিতে দেখা গেল, কাদা পানিতে নেমে লুঙ্গি কাচা মেরে, মাথায় লাল গামছা বেঁধে মন দিয়ে কাজ করছেন সাইমন। তার সঙ্গে মাহিয়া মাহিকে দেখা যাচ্ছে হলুদ পাড় লাল শাড়িতে। যেন গাঁয়ের মিষ্টি বধূ। বেণী করা চুলে লাল ফিতা বেঁধে, হাতে এক গোছা লাল চুরি পরে সবুজ মাঠে শোভা বাড়াতে যেন মাঠে নেমে পড়েছে গাঁয়ের বধূ। বাস্তবে ধানের চারা রোপণ করলেও ‘আনন্দ অশ্রু’ সিনেমার শুটিংয়ের দৃশ্য এটি। সিনেমার শুটিংয়ের প্রয়োজনে কিশোরগঞ্জের নিকলী এলাকায় ‘আনন্দ অশ্রু’ সিনেমার দুটি গানের শুটিং হচ্ছে।

জানা গেছে, ৪ জানুয়ারি থেকে কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলায় মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘আনন্দ অশ্রু’ সিনেমার শেষ লটের শুটিং শুরু হয়। দুটি গানের শুটিং করেছেন সাইমন-মাহি। শুটিং লোকেশন সাইমনের বাড়ি থেকে একটু দূরে। ছেলের শুটিং দেখতে স্পটে হাজির হয়েছিলেন সাইমনের মা-বাবাও। এছাড়াও এলাকার অসংখ্য লোকজনের উপস্থিতি ছিল।
নির্মাতা জানান, দুইটি গানের শুটিং হলেই সিনেমার ক্যামেরা ক্লোজ হবে। এরপর শিগগিরই আমাদের সিনেমার সকল কাজ শেষ হয়ে যাবে। সব কিছু ঠিক থাকলে পহেলা বৈশাখে ‘আনন্দ অশ্রু’ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।

সালমান শাহ-শাবনূর জুটিকে নিয়ে গুণী নির্মাতা শিবলী সাদিক নির্মাণ করেছিলেন ‘আনন্দ অশ্রু’। সিনেমাটি ১৯৯৭ সালে মুক্তি পায়। মুক্তির পর এটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল। একই নামের হলেও এই সিনেমার গল্পে ভিন্নতা রয়েছে। গত বছরের শুরুর দিকে সিনেমার শুটিং শুরু করা হয়েছিল। সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন সাইমন সাদিক, মাহিয়া মাহি ও জয় চৌধুরী। এছাড়াও রয়েছেন আলীরাজ, শহিদুজ্জামান সেলিমসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

January 2020
S S M T W T F
« Dec    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares