জৈন্তাপুরে খাঁসি নদীতে অভিযান, বোমা মেশিন ধ্বংস

প্রকাশিত: 4:48 PM, December 7, 2017

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি :: সিলেটের জৈন্তাপুর সীমান্তের ‘খাঁসি হাওর’ এলাকার ১২৭৮নং আর্ন্তজাতীক পিলারের ৫এস সংলগ্ন এলাকায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান চালানো হয়েছে। এসময় ২০টি বোমা মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌরীন করিমের নেতৃত্বে সকাল সাড়ে ১০টায় বিষেশ এই অভিযান পরিচালনা করে অন্তত ২০টি বোমা মেশিন ধ্বংস করা হয়।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, খাঁসি হাওর এলাকার ১২৭৮নং আর্ন্তজাতীক পিলারের ৫এস সংলগ্ন খাঁসি নদী হতে মোঃ আকবর আলী ও মো: আব্দুস ছাত্তারের নেতৃত্বে পাথর খেকো চক্র সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে পরিবেশ বিধ্বংসী অবৈধ বোমা মেশিন ব্যবহার করে পাথর উত্তোলন করে আসছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে গত ২ ডিসেম্বর নিষেধাজ্ঞা জারী করার পরও চক্রটি বোমা মেশিন ব্যবহার করে পাথর উত্তোলন করে আসছে।
জানা যায়, খাঁসি নদীর সরকারী কোনো লীজ কিংবা কোয়ারী নয়, সেহেতু নদীর উৎস্যমুখ হতে বালু পাথর উত্তোলন করা সম্পূর্ণ বেআইনি ঘোষণা করে বিশেষ অভিযান পরিচালিত হয়। এলাকাবাসীর দাবী পাথর খেকোদের হাত থেকে নদী এবং শত শত একর ফসলী জমি রক্ষার জন্য প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। অন্যতায় খাঁসি হাওরের জৈব বৈচিত্র ধ্বংস হবে শত শত একর ফসলী জমি বিলীন হয়ে জাফলংয়ের মত পরিবেশ ধ্বংস হবে। এছাড়া জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান স্থানীয় এলাকাবাসী।
এ বিষয় জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌরীন করিম বলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি)-কে পাঠিয়ে অবৈধ কার্যক্রম বন্ধের নিদের্শ দেওয়ার পরও পাথর খেকো চক্রের সদস্যরা নদী থেকে তাদের অবৈধ বোমা মেশিন দিয়েপ পাথর উত্তোলন বন্ধ করেনি। তাই বৃহস্পতিবার ওই নদীতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অন্তত ২০টি মেশিন ধ্বংস করি। জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরকে জানানো হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

December 2017
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

সর্বশেষ খবর

………………………..