জৈন্তাপুরে নারীর বিরুদ্ধে আত্মসাত ও মামলার অভিযাগ

প্রকাশিত: 2:13 PM, November 5, 2017

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : সিলেটের জেন্তাপুরে এক নারীর বিরুদ্ধে উত্তরাধিকারীদের টাকা আত্মসাতের গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সম্প্রতি জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে এলাকার ৫০জন স্বাক্ষরিত এক স্মারকরিপিতে এ অভিযোগ করা হয়। স্মারকরিপিতে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারগন সহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গও স্বাক্ষর করেছেন।

অভিযোগে প্রকাশ, সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার হেমু মাজরটুল গ্রামের হাবিবুর রহমান তার পঙ্গু মেয়ে ছায়ারুন বেগম-এর নামে অগ্রণী ব্যাংক হরিপুর গ্যাসফিল্ড শাখায় এফডিআর করে কিছু টাকা জমা রাখেন। নমিনী দেন তার অপর কন্যা রানী বেগমকে। পরবর্তীতে ছায়ারুন বেগম ও তার পিতা হাবিবুর রহমান পর পর মারা গেলে টাকা নিয়ে উত্তকরাধিকারীগনের মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হয়। হাবিবুর রহমানের উত্তকরাধিকারীগন সকলে এ টাকা ভাগ করে নেয়ার দাবি করলে বেঁকে বসেন নমিনী রানী বেগম। তিনি একাকী টাকা উত্তোলন করে ভোগ করার দাবি করেন।

এ নিয়ে এলাকা ও ইউনিয়ন অফিসে একাধিকবার সালিশ বসে । সালিশে রাণী বেগমকে বার বার নোটিশ করা হলেও রানী বেগম হাজির হন নি। তিনি একাকী টাকা আত্মসাতের হীন মানসে সালিশ এড়িয়ে এলাকার মুরব্বিয়ানদের সাথে রাস্তাঘাটে অসদাচরন শুরু করেছেন। একপর্যায়ে গত ২৮ সেপ্টেম্বর মিথ্যা অভিযোগে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জৈন্তাপুর সিলেট আদালতে একটি মামলা (বিবিধ ২৬৮/১৭) করে অন্যান্য উত্তরাধিকারীগনসহ এলাকার মুরব্বিয়ানদের হয়রানী করতে শুরু করেছেন। শুধু মামলা নয় উত্তকরাধিকারী ও এলাকার মেম্বার-চেয়ারম্যান এমনকি গন্যমান্য ব্যক্তিদের মান-সম্মান ক্ষুন্ন করতে বিভিন্ন মিডিয়ায় মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগে প্রকাশ।
স্মারকলিপিতে এলাকাবাসী ও জনপ্রতিনিধিরা মামলাবাজ এবং আত্মসাতকারী নারী রাণী বেগমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..