প্রচ্ছদ

দীর্ঘ আন্দোলনের ফসল গ্রেফতারের দেড় ঘন্টাতেই ছাত্রলীগ নেতার মুক্তি

১৪ মে ২০১৯, ১৬:১২

স্টাফ রিপোর্টার ::
ছাত্রলীগ নেতা ও ইন্টার্ন চিকিৎসকরা

Sharing is caring!

সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাজিফা আনজুম নিশাতকে ধর্ষণ ও ছোরা দেখিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে করা মামলায় গ্রেফতার করা হলেও দেড় ঘণ্টা পরেই জামিনে মুক্তি পান তিনি।

সারোয়ার হোসেন চৌধুরীকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত আরও ৮-১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

মঙ্গলবার (১৪ মে) বেলা আড়াইটার দিকে কোতোয়ালি থানাধীন নগরের কোর্টপয়েন্ট এলাকা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞা।

ওসি জানান, পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আদালতের গেট থেকে সারোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করে। এছাড়াও পুলিশ মামলার অজ্ঞাত আসামিদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৯ মে) বিকালে পেটের পীড়ায় ভোগায় একজনকে সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে ১০-১৫ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী। এসময় রোগীর সঙ্গে একজন থেকে বাকিদের বাইরে যেতে বলেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চিকিৎসকের ওপর চড়াও হন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

তখন দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি সারোয়ার হোসেন চিকিৎসক নাজিফা আনজুম নিশাতকে ছুরি দেখিয়ে হত্যা ও ধর্ষণের হুমকি দেন বলে অভিযোগ করেছেন ওই চিকিৎসক। নিশাত নিজের ফেসবুক আইডিতে বিষয়টি উল্লেখ করে পোস্ট দিলে এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়। ইন্টার্ন চিকিৎসকরা নেতাকে গ্রেফতারের জন্য আন্দোলন করেও কোন লাভ হয়নি।

  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর

আর্কাইভ

May 2019
S S M T W T F
« Apr    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
shares