প্রচ্ছদ

কানাইঘাটে ইউপি সদস্যার কুদালের আঘাতে মাথা ফাটলো মহিলার

১০ মার্চ ২০১৯, ২১:০১

crimesylhet.com

Sharing is caring!

কানাইঘাট প্রতিনিধি:: কানাইঘাটে এক মহিলা ইউপি সদস্যা ও তার পুত্র কর্তৃক এক মহিলার মাথা ফাটিয়ে দিয়ে গুরুতর জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল রবিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার ৫নং বড়চতুল ইউপির ইন্দ্রকোনা গ্রামে। অভিযোগে জানা যায় ইন্দ্রকোনা গ্রামের মৃত জমির আলীর পুত্র হারুন আহমদ (৩৩) এর সাথে তার আপন বড় ভাই আব্দুস সালামের বসত বাড়ীর জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

ছোট ভাই হারুনের অভিযোগ বড় ভাই সালাম ও তার স্ত্রী বড়চতুল ইউপির ৩নং সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্যা নাজমা বেগম তাকে ভিট বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করার জন্য বিভিন্ন ভাবে পায়তারা চালিয়ে আসছিল। এমন কি তারা হারুন আহমদের বসত বাড়ীর অংশ থেকে জোর পূর্বক ভাবে গাছপালা কেটে নেওয়া সহ বাড়ী ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য হারুন আহমদ কে নানা ভাবে হুমকি প্রদান করে আসছিল।

এর জের ধরে রবিবার সকাল ৭টার দিকে ইউপি সদস্যা নাজমা বেগম ও তার স্বামী আব্দুস সালাম, ছেলে সেলিম আহমদ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হারুন আহমদের বসত ঘরে চড়াও হয়ে তার উপর হামলা চেষ্টা করলে হারুন আহমদের স্ত্রী শামীমা বেগম (২৬) স্বামী বাঁচাতে এগিয়ে আসলে ইউপি সদস্যা নাজমা ধারালো কুদাল দিয়ে শামীমা বেগমের মাথায় আঘাত করলে রক্তাক্ত জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন শামীমা।

এ সময় হামলাকারীরা হারুন আহমদ কে এলোপাতাড়ী ভাবে পিটিয়ে আহত সহ বসত ঘরের মালামাল ভাংচুর করে প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি সাধন করে। গুরুতর আহত অবস্থায় শামীমা বেগম কে তার স্বজনরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় শামীমা বেগম বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় গতকাল রবিবার ইউপি সদস্যা ও তার স্বামী পুত্র সহ ৪জন কে আসামী করে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানার এসআই পান্নালাল দে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন।

এব্যাপারে ইউপি সদস্যা নাজমা বেগমের বক্তব্য না পাওয়া গেলেও ৫নং বড়চতুল ইউপির চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হোসেইন বলেছেন জমিজমা নিয়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে। আমরা সামাজিক ভাবে মিমাংসার চেষ্টা করছি।

  •  
  •  
  •  

আর্কাইভ

shares