প্রচ্ছদ

বিশ্বনাথে ভোট প্রার্থনায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

০৯ মার্চ ২০১৯, ১৯:১৭

crimesylhet.com

Sharing is caring!

মো. আবুল কাশেম, বিশ্বনাথ :: ‘ভোট চাই ভোটারের, দোয়া চাই সকলের’ প্রতীক পেয়ে এমন শ্লোগানে পুরোপুরি নির্বাচনী পরিবেশ এসে গেছে বিশ্বনাথে। প্রতীক পাওয়ার পরপরই মাইকিং, লিফলেট বিতরন, গনসংযোগ, পোস্টারিং, নানা ধরনের নির্বাচনী প্রচারনার দৃশ্য দেখা গেছে উপজেলার পথঘাটসহ বিভিন্ন এলাকায়। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের উপস্থিত হয়ে প্রচারনার দৃশ্য দেখা গেছে। প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই আনুষ্ঠানিক এই প্রচারনা শুরু হয়েছে। আগামী ১৮ মার্চ বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলার সর্বত্র এখন বিরাজ করছে নির্বাচনী হাওয়া। নির্বাচনে প্রতীক পাওয়ার পর থেকে প্রচার প্রচারণা ও ভোটারদের মন জয় করতে রাতদিন গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী, ভাইস চেয়ারম্যান পদে আটজন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
প্রার্থীরা হলেন-বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও বহিস্কৃত জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সুহেল আহমদ চৌধুরী (কাপপিরিছ) প্রতিক, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এস এম নুনু মিয়া (নৌকা), প্রতিক, বহিস্কৃত যুক্তরাজ্যের কলচেষ্ঠার বিএনপির সভাপতি মিছবাহ উদ্দিন (আনারস) প্রতিক, ইসলামী ঐক্যজোট নেতা কাজী মাওলানা রুহুল আমিন (মিনার) প্রতিক।
ভাইস-চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন-স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও বহিস্কৃত উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক আহমেদ-নূর উদ্দিন (মাইক) প্রতিক, আওয়ামী-লীগ মনোনিত প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন (তালা) প্রতিক, আ.লীগ নেতা নোয়াব আলী (গ্যাস সিলিন্ডার) প্রতিক, বহিস্কৃত জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান খারৈদ (চমশা) প্রতিক, বহিস্কৃত উপজেলা যুবদল নেতা জুবেল আহমদ (উড়োজাহাজ) প্রতিক, বহিস্কৃত মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফ উদ্দিন (টিয়াপাখি) প্রতিক, উপজেলা আঞ্জুমানে আল-ইসলাহর কোষাধ্যক্ষ হাবিবুর রহমান (বই) প্রতিক, বিশ্বনাথ ক্রিকেট এসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম (টিউবওয়েল) প্রতিক।
মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন-মহিলা-ভাইস চেয়ারম্যান বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও বহিস্কৃত জেলা মহিলা দলের সহ সভাপতি বেগম স্বপ্না শাহীন (বৈদ্যুতিক পাখা), উপজেলা শ্রমিক লীগের সহ সভাপতি আমিনুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ জুলিয়া বেগম (কলস) প্রতিক, বহিস্কৃত জেলা মহিলা দলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমা বেগম (প্রজাপতি) প্রতিক, বহিস্কৃত উপজেলা মহিলা দলের আহবায়ক নূরুন্নাহার ইয়াসমিন (ফুটবল) প্রতিক, সাবেক মহিলা মেম্বার নেহারা বেগম (পদ্মফুল) প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহন করছেন।
এবারের নির্বাচনে বিএনপির নয় নেতা-নেত্রী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহন করছেন। এরই মধ্যে চেয়ারম্যান পদে দুইজন, ভাইস-চেয়ারম্যান পদে চারজন ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে তিনজন। দলীয় সিন্ধান্ত অমান্য করে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেয়ায় গত রবিবার বিএনপি থেকে ওই নয় প্রার্থীকে বিএনপি থেকে বহিস্কার করা হয়।
প্রার্থীরা প্রতিদিন এলাকার ভোটারদের কাছে চষে বেড়াচ্ছেন। চাইছেন ভোট ভিক্ষা। নির্বাচনী প্রচারে শুরুতে প্রার্থীরদের প্রচার প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে এলাকা। উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের পথ প্রান্তে মাঠ-ঘাট,দোকান, টি স্টোলসহ সর্বত্রে চলছে এ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা। নির্বাচনের দিন যত ঘনিয়ে আসছে পদপ্রার্থীদের প্রচারণায় ব্যস্ততা বেড়েছে। নির্ঘুম প্রচারণা ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। কাক ডাকা ভোর থেকে ভোটারদের কাছে ছুটে বেড়াচ্ছেন। তারা সমানতালে চালাচ্ছেন প্রচার-প্রচারণা। এলাকার সবখানে এখন চোখে পড়ছে সকল প্রার্থীর ছবি সংবলিত সাদা-কালো পোস্টার। তাদের পক্ষে ভোট চেয়ে প্রচারপত্র বিলি করছেন দলীয় নেতা ও কর্মী-সমর্থকরা। তারা নিজেরাও নাগরিক প্রত্যাশা পূরণের আশ্বাস দিয়ে ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন। নিজেদের সপক্ষে ভোট নিতে বিভিন্ন গ্রাম পাড়া বা মহল্লায় ছোট ছোট বৈঠক ও সমাবেশ করছেন। যে যার মতো ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাচ্ছেন। নিজের সমর্থকদের সাথে নিয়ে মানুষের বাড়ি বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। কেউ কেউ করছেন উঠান বৈঠকও। শেষ-মেশ কে পড়বেন বিজয়ের মালা, সেজন্য অপেক্ষা করতে হবে আগামী ১৮ মার্চ পর্যন্ত।
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর

আর্কাইভ

shares