কানাইঘাটে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন : নেপথ্যে পরকীয়া

প্রকাশিত: 10:14 PM, February 17, 2018

Sharing is caring!

কানাইঘাট সংবাদদাতা : সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সীমান্তবর্তী লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউ.পির সোনাতনপুঞ্জি গ্রামে গতকাল শনিবার স্বামীর হাতে নির্মম ভাবে খুন হয়েছেন এক স্ত্রী। এ ঘটনায় কানাইঘাট থানা পুলিশ নিহতের শ্বশুড় ও শ্বাশুড়ীকে আটক করেছে। জানা যায় সোনাতনপুঞ্জি গ্রামের শফিকুল হকের পুত্র রিক্সা চালক ইব্রাহিম আলী উরফে ইমন (২৩) এর স্ত্রী জাহানারা বেগম (১৯) বাড়ীর পাশের একটি ছড়ায় শনিবার সকাল অনুমান ১০টার দিকে গোসল করতে যায়। এ সময় স্বামী ইমন টিলার উপর থেকে তার চাচাতো ভাই সিরাজ উদ্দিন (২৫) সাথে স্ত্রী জাহানারার ফস্টি -নস্টী দেখতে পেয়ে পেয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে সিরাজ উদ্দিনকে কোপানোর চেষ্টা করলে সে পালিয়ে যায়। এ সময় ক্ষুব্ধ ইমন স্ত্রী জাহানারাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।
কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক জাহানারাকে মৃত ঘোষনা করেন। হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে থানার ওসি (তদন্ত) নুনু মিয়া হাসপাতালে গিয়ে নিহত জাহানারার শ্বশুড় ও শ্বাশুড়ীকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। স্ত্রী হত্যাকারী ঘাতক স্বামীকে গ্রেপ্তার করতে এলাকায় পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন ইব্রাহিম আলী উরফে ইমন অনুমান ১ বছর পূর্বে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে জৈন্তাপুর উপজেলার ছাত্তারখাই গ্রামের লাল মিয়ার পুত্র জয়নালের স্ত্রী জাহানারাকে পচিয়ে এনে বিয়ে করে। তাদের কোন সন্তান নেই। ইমনের চরিত্র ভাল নয় সে একটি ডাকাতি মামলায় আড়াই মাস জেল খেটে কিছু দিন পূর্বে জেল থেকে বের হয়ে স্ত্রীকে শ্বশুড়ালয় থেকে বাড়ীতে নিয়ে যায়। শনিবার বাড়ীর পাশের ছড়ায় গোসল করতে জাহানারা আসলে চাচাতো ভাই সিরাজের সাথে স্ত্রীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখতে পেয়ে কুপিয়ে হত্যা করে স্বামী ইমন এমন ধারনা করছেন প্রতিবেশিরা। থানায় আটক জাহানার শ্বশুড় শফিকুল হক ও শ্বাশুড়ী রাহেনা খাতুন স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন সিরাজ উদ্দিন তাদের পুত্রবধু কে গোসল করার সময় ইজ্জত হরন করতে চাইলে আমাদের ছেলে ইমন নিজেকে সামলাতে না পেরে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে সে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করেনি। থানার ওসি (তদন্ত) নুনুমিয়া জানান জাহানারা কে হত্যার ঘটনায় তার স্বামী ইমনকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশের অভিযান চালাচ্ছে। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকা সন্দেহে জাহানারার শ্বশুড় শ্বাশুড়ীকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট সিলেট সিওমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। অপর দিকে নিহতের মা মালীগ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের স্ত্রী ছফিনা বেগম কান্না জড়িত কণ্ঠে জানিয়েছেন তিনি ভিক্ষা করে সংসার চালান। তার নিষ্পাপ মেয়েকে জামাই ইমন ও তার বাবা শফিকুল হক ও মা রাহেনা খাতুন ও সিরাজ উদ্দিন মিলে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে । তার মেয়েকে গত বুধবার নিজ বাড়ী থেকে জামাই ইমন নিয়ে তার বাড়ীতে যায়। পূর্বে কয়েকবার তার মেয়েকে নির্যাতন করা হয়েছিল। তিনি হত্যাকান্ডের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী জানিয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

February 2018
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
2425262728  

সর্বশেষ খবর

………………………..