ওসমানীনগরে মহিলার লাশ উদ্ধার: পুলিশ বলছে আত্মহত্যা, পরিবারের দাবি হত্যা

প্রকাশিত: ১২:০০ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০১৯

ওসমানীনগরে মহিলার লাশ উদ্ধার: পুলিশ বলছে আত্মহত্যা, পরিবারের দাবি হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার :: ওসমানীনগরে দুই সন্তানের জননীর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। রোববার দুপুরের উপজেলার চিন্তা মইন গ্রামের জিলা মিয়ার স্ত্রী দুই সন্তানের জননী শেফা বেগমের(২৯) এর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।

মৃত শেফা বেগম বিশ্বনাথ উপজেলার বড়গাও গ্রামের ইসব মিয়ার মেয়ে প্রায় ১২ বৎসর আগে লিজা মিয়ার সাথে শেফা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে অশান্তি। ১২ বৎসরে তাদের দুইটি সন্তান বড় মেয়ে মাহি বেগম (৯) ও ছোট ছেলে রাফি (৭) এই দুই সন্তানের জননী শেফা।

শেফা বেগমকে হত্যা দাবি করে তার বড় বোন রিনা বেগম জানান, রোববার দুপুরের জিলা মিয়ার পরিবারের লোকজন খবর দেন শেফা আত্মহত্যা করছে। এমন খবর শুনে সকল আত্মীয়স্বজন ছোটে যান গিয়ে দেখেন মাটিতে লাশ রাখা এবং ঘটনা স্থলে পুলিশ। পরে তারা শেফার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখে পুলিশকে বলেন শেফাকে হত্যা করা হয়েছে। রিনা বলেন আরো বলেন, শেফার মাথার আঘাত করে তাকে মারা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

এব্যপারে ওসমানীনগর থানার ওসি এসএম আল মামুন লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চত করে বলেন শেফা বেগম আত্মহত্যা করেছে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য ওসমানী হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শেফার পিতার পরিবারের পক্ষে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

April 2019
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930  

………………………..