মহানগর মহিলা দলের কমিটি নিয়ে ক্ষোভ বিরাজ

প্রকাশিত: 12:19 AM, December 16, 2017

ক্রাইম ডেস্ক : দীর্ঘদিন পর সিলেট জেলা ও মহানগর মহিলা দলের কমিটি দেয়া হয়েছে কেন্দ্র থেকে। কিন্তু ঘোষিত মহানগর মহিলা দলের কমিটি নিয়ে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ। দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে কমিটি নিয়ে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। নেতাকর্মীদের অভিযোগ, কমিটিতে ত্যাগী ও রাজপথের নেতারা মূল্যায়িত হননি। এমনকি ওই কমিটি সিলেট মহানগর বিএনপি নেতাদের প্রেসক্রিপশন অনুসারেই তাদের সুপারিশে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।
জানা যায়, সর্বশেষ ২০১৩ সালে সিলেট মহানগর মহিলা দলের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছিল। ওই কমিটির সভাপতি ছিলেন অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ। গত প্রায় ছয় মাস আগে নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সিলেট জেলা ও মহানগর মহিলা দলের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু ওই সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ কমিটি ঘোষণা না করেই ঢাকায় ফিরে যান। পরবর্তীতে মহানগর মহিলা দলের পক্ষ থেকে একাধিক কমিটিও কেন্দ্রে জমা দেয়া হয়। কিন্তু তা অনুমোদন না করে কেন্দ্রীয় নেত্রীরা সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি নেতাদের মহিলা দলের কমিটি কেন্দ্রে প্রেরণের দায়িত্ব দেন।
মহিলা দলের পক্ষ থেকে জমা দেয়া কমিটি প্রত্যাখান করে বিএনপি নেতাদের সুপারিশকৃত কমিটি গত ৭ ডিসেম্বর মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি আফরোজা আব্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ অনুমোদন দেন। ১৯৩ সদস্যের সিলেট জেলা ও ৯৩ সদস্যের মহানগর মহিলা দলের কমিটি ঘোষণার পর থেকে মহিলা দলের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দেয়। রাজপথের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেত্রীদের বাদ দিয়ে বিএনপি নেতারা তাদের পছন্দসই ও নিষ্ক্রিয়দের কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করে কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, মহানগর মহিলা দলের বিগত কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সিলেট ল’ কলেজের সাবেক ভিপি ও সিলেট সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র রোকসানা বেগম শাহনাজ এবার সভাপতি পদে প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু সভাপতি পদ পাওয়া তো দূরের কথা সদ্য ঘোষিত কমিটিতে সদস্য পদেও রাখা হয়নি তাকে। অভিযোগ ওঠেছে, এবারের মহানগর কমিটিতে দায়িত্ব পাওয়া সভাপতি জাহানারা ইয়াসমিন ও সাধারণ সম্পাদক নিগার সুলতানা ডেইজি রাজনীতির মাঠে ততটা সক্রিয় নন। বিশেষ করে সাধারণ সম্পাদক ডেইজি বেশ কয়েক বছর ধরে রাজনীতির মাঠে নিরব বলে জানা গেছে।
নেতাকর্মীরা বলছেন, এবারের কমিটিতে রাজপথে সক্রিয় ও ত্যাগীদের মূল্যায়ন করা হয়নি। বিএনপি নেতাদের প্রেসক্রিপশনে যে কমিটি দেয়া হয়েছে, তাতে তৃণমূলের প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটেনি।
মহানগর মহিলা দলের নেত্রী রোকসানা বেগম শাহনাজ বলেন, ‘আমি গত কমিটির সাধারণ সম্পাদক, এবার সভাপতি পদে প্রার্থী ছিলাম। সিটি করপোরেশনের টানা দুইবারের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র আমি, ছিলাম ল কলেজের ভিপিও। কিন্তু কোন অশুভ শক্তির কারণে আমাকে এবার সদস্য পদেও রাখা হল না, তা বোধগম্য নয়।’ তিনি বলেন, ‘আমি কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সাথে আলাপ করে জেনেছি, তারা সিলেট মহানগর বিএনপি নেতাদের দেয়া কমিটিই অনুমোদন করেছেন।’
এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম বলেন, ‘আমাদের দেয়া কমিটিই কেন্দ্রীয় মহিলা দল অনুমোদন করেছে। আমরা ভারসাম্য রেখে কমিটি করেছি, নতুন মুখ এনেছি। কমিটি নিয়ে কোন অসন্তোষ নেই। যারা আগের কমিটিতে মূল দায়িত্বে ছিলেন, তাদেরকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে রাখার জন্য আমরা সুপারিশ করেছি।’

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

December 2017
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

সর্বশেষ খবর

………………………..