ছাতকে সমাপনী পরীক্ষার অজুহাতে অর্ধশতাধিক স্কুল বন্ধ

প্রকাশিত: 6:21 PM, November 20, 2017

ছাতক প্রতিনিধি : ছাতকে সরকারি আইন লঙ্ঘন করে অর্ধশতাধিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। রোববার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার অজুহাতে এসব বিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়। এঘটনায় উপজেলাজুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা ও অভিবাক মহলে অসন্তেুাষ বিরাজ করছে। শিশু শ্রেণি থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত শিশুদের বার্ষিক পরীক্ষা সামনে থাকার পরও কিছু অসাধু শিক্ষকদের সমাপনি পরীক্ষার ডিউটি বানিজ্যে লেখা পড়া বন্ধ রয়েছে। জানা যায়, রোববার উপজেলার ১শ’ ৮২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৯হাজার ৪শ’ ৭৮জন ও ৩৭টি ইবতেদায়ি-দাখিল মাদরাসার ১হাজার ৫৮জন পরীক্ষার্থী সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এদের মধ্যে প্রথম দিনে অনুপস্থিত ছিল ৫শ’ ১১জন। ২৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার ডিউটিতে রয়েছেন ৩শ’ শিক্ষক-শিক্ষিকা। এদিকে সমাপনী পরীক্ষার অজুহাতে বাগবাড়ি মডেল, তাতিকোনা, হাদা চানপুরসহ অর্ধশতাধিক স্কুলে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। এদিকে উপজেলার ৯শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষিকা কর্মরত থাকার পরেও কিছু কিছু স্কুলের সব শিক্ষকদের সমাপনি ডিউটিতে দেয়ার কী কারণ থাকতে পারে কারো জানা নেই। ধারনা করা হচ্ছে অফিসিয়াল কাজের লোক ছাড়া অফিসের কাজ বাহিরের কিছু অসাধু শিক্ষকদের কে দিয়ে করানোর কারণে তাদের কারসাজিতে এটা হতে পরে। ব্যাপক অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে পরীক্ষার ডিউটি তালিকা বন্টন করায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে আরো অভিযোগ উঠেছে, শিক্ষকরা পৌরসভায় টিউশনি করান তাদেরকে আবার পৌর সভায় তার ছাত্রদের সেন্টারেই রাখা হয়েছে। প্রতি স্কুল থেকে একজন অথবা দু’জন করে ডিউটির তালিকা করলে এভাবে বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকট সৃষ্ঠিসহ পাঠদান ব্যাহত হতো না বলে অভিজ্ঞমহল জানিয়েছেন। শহরের মন্ডলীভোগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হেলালুজ্জামান জানান, স্কুল বন্ধ রাখা সরকারি কোন নীতিমালায় নেই। এজন্যে আমার বিদ্যালয়টি খোলা রেখে পাঠদান চালাচ্ছি। শিক্ষা অফিসার মানিক চন্দ্র দাস বলেন, শিক্ষক-শিক্ষিকারা সমাপনী পরীক্ষার ডিউটিতে চলে যাওয়ায় অনেক স্কুলে পাঠ দান বন্ধ রাখা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খান প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে পাঠদান বন্ধ রাখার বিষয়ে তিনি অবগত নন বলে জানান। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে সরকারি আইন লঙ্ঘনকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

November 2017
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..