সুনামগঞ্জে আমি মন্ত্রণালয়কে সাথে নিয়ে এসেছি : পানিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত: ১০:৫৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৪, ২০১৮

সুনামগঞ্জে আমি মন্ত্রণালয়কে সাথে নিয়ে এসেছি : পানিসম্পদ মন্ত্রী

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : পানিসম্পদ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেছেন,‘ আমরা মিছা (মিথ্যা) কথা কই (বলি) না। যা বলি তা করে দেখাই। বলেছিলাম, হাওরের বোরো ফসলরক্ষা বাঁধ নির্মাণের প্রয়োজনে পুরো পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়কে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসব। আমি কথা রেখেছি, সুনামগঞ্জে আমি মন্ত্রণালয়কে সাথে নিয়ে এসেছি।’

হাওরের বাঁধ নির্মাণ কাজের সমাপ্তি ও পরবর্তী করণীয় নিয়ে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। বুধবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সার্কিট হাউস মিলনায়তনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রসঙ্গত, পানিসম্পদ মন্ত্রি আনোয়ার হোসেন মঞ্জু গত ২০ জানুয়ারি সুনামগঞ্জের হাওর ও বাঁধ পরিদর্শনকালে বলেছিলেন, হাওরবাসীর প্রয়োজনে পুরো পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়কে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসবেন। বুধবার সুনামগঞ্জের মতবিনিময় সভায় তিনি মন্ত্রণালয়ের সবাইকে সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন।

মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী আরও বলেন,‘ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় হাওরাঞ্চলের মানুষের দুর্ভোগ লাগব করতে আমরা আপ্রাণ কাজ করে যাচ্ছি। সবাই বলছেন, এবার ফসলরক্ষা বাঁধের কাজ ভাল হয়েছে। হাওরে বোরো ফসল ভাল হয়েছে। তবে যেসব ধান পেকে গেছে তা দ্রুত কাটতে হবে। আগামী ১৫ এপ্রিলের মধ্যে সব পাকা ধান কেটে তুলতে হবে। আগামজাতের ধান (ব্রিধান ২৮) জাতের ধান চাষাবাদ করতে সবাইকে অনুরোধ করতে হবে। ফলন কিছু কম হলেও আগাম বন্যার আগে ফসল ঘরে তুলা যাবে।’

এরপর পানিসম্পদ মন্ত্রি, প্রতিমন্ত্রী, সচিব, পানি উন্নয়নের মহাপরিচালকসহ সকল উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণকে সাথে নিয়ে হেলিকপ্টার লো ফ্লাই করে সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ জেলার বিভিন্ন হাওরের বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করে ঢাকায় ফিরেন।

জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও জেলা স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মো. এমরান হোসেনের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বীর প্রতীক, এমপি সামছুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব কবির বিন আনোয়ার, অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ ইউসুফ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মো. মাহফুজুর রহমান, সুনামগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভূঁইয়া, পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান, দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী বীর প্রতীক, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি অ্যাড. শফিকুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান, উন্নয়নকর্মী জামিল চৌধুরী, মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হক, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুর রহমান প্রমুখ।

সভায় সুনামগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভূঁইয়া জানান, এখন পর্যন্ত বাঁধ নির্মাণের কাজ ৯৪ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। সুনামগঞ্জের ৩৬টি হাওরের বোরো ফসল রক্ষায় ১৭৭ কোটি ৪৪ লাখ টাকা পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে। ৯৬৪টি পিআইসি (প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি) বাঁধ নির্মাণ কাজ করছেন। পিআইসিদের বিপরীতে ১২৫ কোটি ২৬ লাখ টাকা ছাড় করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares