বিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট গ্রহণ স্থগিত

প্রকাশিত: ৩:২১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০২২

বিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট গ্রহণ স্থগিত
বিশ্বনাথ প্রতিনিধি : সিলেটের বিশ্বনাথ পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।
রোববার বিকালে নির্বাচন কমিশনের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওই নির্বাচন স্থগিত করেন মৌলভীবাজার জেলা নির্বাচন অফিসার ও বিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা  মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত আগামী ২ নভেম্বর বুধবার ওই ওয়ার্ডের সাধারণ আসনের কাউন্সিলর পদের নির্বাচন স্থগিত থাকবে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বনাথ পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে জানাইয়া গ্রামের আমির উদ্দিন কাউন্সিলর প্রার্থী হন। গত ৬ অক্টোবর মনোনয়নপত্র দাখিলের পর আমিরের মনোনয়নপত্র তার বড় ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী কামাল উদ্দিনের নামে দাখিল করেন।

প্রবাসী বড় ভাইয়ের নামে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়াসহ নানা তথ্য গোপন করলেও তার এ মনোনয়নপত্রটি বৈধ হয়। এতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলর প্রার্থী ও ইউপি সদস্য ইউনুস আলী সাংবাদিকদের জানান, জানাইয়া গ্রামের রইছ আলীর চার ছেলে। তারা হলেন- জামাল উদ্দিন, কামাল উদ্দিন, আমির উদ্দিন ও নাজিম উদ্দিন। এর মধ্যে জামাল ও কামাল যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমিয়েছেন।

এরপরও কিভাবে কামালের নামে মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হলো? ভোটাররা কামাল না আমির কাকে ভোট দেবেন। এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের স্থানীয় কর্মকর্তাদের প্রতি অভিযোগও তোলেন তিনি।

তিনি বলেন, শুধু নাম পরিবর্তন নয়, শিক্ষাগত যোগ্যতা ও মামলার বিষয়েও তথ্য গোপন করা হয়েছে। কামাল ও আমির দুজনই বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের নেতা। কামাল উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। অন্যদিকে সম্প্রতি আমির বিশ্বনাথ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মনোনীত হন।

দুজনই এসএসসি পাশ ও তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে। কিন্তু হলফনামায় এসব তথ্য নেই। এরপরও রিটার্নিং কর্মকর্তা কিভাবে তার মনোনয়নপত্র বৈধ করল তা ইসির তদন্ত করে দেখা উচিত বলে দাবি করেন।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..