সীমান্তবর্তী জৈন্তাপুর দিয়ে চোরাচালানী মহোৎসব

প্রকাশিত: ৭:২৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২

সীমান্তবর্তী জৈন্তাপুর দিয়ে চোরাচালানী মহোৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেটের সীমান্তবর্তী জৈন্তাপুরের উপর দিয়ে চলছে চোরাচালানী মহোৎসব। উপজেলার সীমান্তবর্তী বিভিন্ন রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত ভারতীয় চারাই পন্য উপজেলার বিভিন্ন রাস্তা দিয়ে পরিবহন করা হয়ে থাকে। চোরাচালানীরা ট্রাক বোঝাই করে কোটি কোটি টাকা মূল্যের ভারতীয় চোরাই পণ্য পাচার অব্যাহত রখেছে। উপজেলার চারিকাটা ইউনিয়নের দরবস্ত-রামপ্রসাদ রাস্তাই ভারতীয় পণ্য চোরাচালানের প্রধান পয়েন্ট। এ পয়েন্ট দিয়ে চোরাই মাল আমদানী করতে বিজিবি ও থানা পুলিশের সোর্সদের দিতে হয় মোটা অংকের টাকা।

সিলেটের জৈন্তাপুরে অভিনব কৌশলে ট্রাকের বালির ভেতরে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা মূল্যের ভারতীয় শাড়ি ও প্রসাধনী পাচার করার সময় ট্রাকসহ এক চোরাকারবারিকে আটক করেছে পুলিশ।
শুক্রবার(১৬ সেপ্টেম্বর) ভোররাতে সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাকরি এলাকা থেকে একটি ট্রাকসহ মালামাল জব্দ করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদ। আটক ব্যক্তি সিলেটের জৈন্তাপুর থানার শ্যামপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে রাহেল মিয়া (২২)।

মাঝেমধ্যেটু-পাইসের লেনেদেনে খানিকটা ব্যাঘাত ঘটলে আইওয়াশ অভিযান চালায় পুলিশ-বিজিবি। অভিযানকারে পরিবহণ শ্রমিক আটক ও পণ্যের চালান জব্দ করলেও মূল চোরাচালানী সিন্ডিকেট সদস্যরা থেকে যায় ধরাছোয়ার বাইরে। পুলিশ চোরাচালানী সিন্ডিকেট সদস্যদের ধরাতো দুরের কথা এদের নাম প্রকাশ করতেও রাজি হয় না।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক চোরাকারবারী জানান, তারা নিয়মিত স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দারিত সোর্সদের ম্যানেজ করে এসকল চোরাচালান করে আসছেন। তাছাড়া সিলেট জেলা ডিবি পুলিশের সোর্স পরিচয় দিয়ে একটি চক্র নিয়মিত টাকা আদায় করেন।

জানা গেছে, সম্প্রতি রাতে জৈন্তাপুর রাজবাড়ি বিজিবি ক্যাম্পের একটি টহল টিম মোটর সাইকেল নিয়ে দরবস্ত-রামপ্রসাদ রাস্তায় ভারতীয় পন্য কসমেটিক বুঝাই একটি ট্রাক আটক করতে অভিযান চালায়। গাড়িটিকে ধাওয়া করলে চালাক টহলরত বিজিবি সদস্যকে চাপা দেয়। এসময় কসমেটিক ভর্তি দ্রুতগতির ট্রাক পাশ্বর্বতী খাদে পড়ে যায়। গাড়ির চাপায় মোটর সাইকেল আরোহী টহল বিজিবি সদস্য গুরুত্বর আহত হন।

স্থানীয় জনতা আহত বিজিবি সদস্যকে উদ্বার করে প্রথমে জৈন্তাপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতারে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার একদল পুলিশ এবং অতিরিক্ত বিজিবি ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তারা গাড়ি সহ ভারতীয় পন্য কসমেটিকের অবৈধ চালান আটক করে।

এ ব্যাপারে জৈন্তাপুর রাজবাড়ি বিজিবি ক্যাম্পের সাথে যোগাযোগ করা হলে বিজিবি’র এক সদস্য ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং আহত বিজিবি সদস্য সিলেটের একটি হাসপাতলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

একইদিন বৃহস্পতিবার দুপুরে জৈন্তাপুর উপজেলার কাটাগং এলাকা থেকে বালুভর্তি একটি ট্রাক (ঢাকা-মেট্রো-ট-২২-৭৫৯২) ও ট্রাকে থাকা প্রায় অর্ধকোটি টাকা মূল্যের ভারতীয় কসমেটিক পণ্য জব্দ করে পুলিশ। জব্দ করা ট্রাকের বালুর নিচ থেকে ৩১টি বস্তা ভারতীয় কসমেটিক্স উদ্ধার করে। এসময় ট্রাকের হেল্পারকে আটক করে। আটক হেল্পার মো. সুজন (২৭) সুনামগঞ্জ জেলার মধ্যনগর থানার কার্তিকপুর গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের ছেলে।

উল্লেখিত দুই ঘটনায় থানায় মামলা হলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায় চোরাচালানীরা। দরহম মহরম চলতে থাকে তাদের সাথে। জব্দকৃত মালেল মালিক চোরাচালানীদের ধরতে ও প্রকাশে আনতে চায়না পুলিশ।
সম্প্রতি এই দুই ঘটনার সাথে জড়িত মূল চোরাচালানীদের নাম জানতে জৈন্তাপুর মডেল থানার ওসি গোলাম দস্তেগীর খানকে একাধিকবার কল কলে ঘটনার সাথে জড়িত মূল চোরাচালানীদের নাম প্রকাশে তিনি বারাবার অপারগতা প্রকাশ করেন।

ক্রাইম সিলেট/রায়হান

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

September 2022
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930

সর্বশেষ খবর

………………………..