বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্রে রাতের আধারে পাথর চুরি : দিনে ট্রাকে বিক্রি

প্রকাশিত: ৯:৪৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২২

বিছনাকান্দি পর্যটন কেন্দ্রে রাতের আধারে পাথর চুরি : দিনে ট্রাকে বিক্রি

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়াইনঘাট : সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুর ইউনিয়নে অবস্থিত বিছনাকান্দি পাথর কোয়ারী। এরকম আরেকটি পাথর কোয়ারী হল জাফলং। অবশ্য অনিয়ন্ত্রিত পাথর উত্তোলনের ফলে জাফলং এর সৌন্দর্য আজ নষ্টের পথে কিন্তু বিছানাকান্দি তার যৌবন ধরে রেখেছে। কিন্তু একটি অসাধু পর্যটন কেন্দ্র বিছনাকান্দি জিরো পয়েন্ট থেকে চক্র রাতের আধারে পাথর চুরি করতে মারিয়া হয়ে উঠেছে। সেই চুরির পাথর দিনের বেলা প্রভাবশালীদের মালিকানা ট্রাকে বিক্রি করে দেওয়া হয়। ট্রাকগুলো প্রাকাশ্যে বিছনাকান্দি থেকে চোরাই পাথর নিয়ে দেশের ভিন্ন স্থানে চলে যায়। কোথাও আটক হলে প্রভাবশালীদের ফোন চলে যায় সাথে সাথে।

খোদার ঢোল ফেরেস্তায় বাজায় বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬ থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করেন শ্রমিকরা।

গোয়াইনঘাট উপজেলার বঙ্গবীর-হাদারপার সড়ক থেকে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ কর্তৃক পাথর বোঝাই ট্রাক আটকের প্রতিবাদে আম্বরখানা-ভোলাগঞ্জ মহাসড়ক ও সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়ক অবরোধ করেছেন ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা। তবে পুলিশের আশ্বাসে অবরোধের দেড় ঘণ্টা পর অবরোধ তুলে নেন আন্দোলনকারীরা।

সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত গোয়াইনঘাট পশ্চিম আঞ্চলিক শাখার সভাপতি হাফিজুর রহমান জানান- বিছনাকান্দি পাথর কোয়ারি থেকে ছোট-ছোট বারকি নৌকা থেকে পাথর সংগ্রহ করে ট্রাক চালকেরা পাথর বোঝাই ট্রাক নিয়ে বঙ্গবীর-হাদারপার সড়কের খাইরাই নামক স্থানে আসার পর গোয়াইনঘাট থানার এসআই অনুজ ও এএসআই জালাল উদ্দিন ৩ টি ট্রাক আটক করে গোয়াইনঘাট থানায় নিয়ে যান। ঘটনার খবর পেয়ে আমরা শ্রমিক নেতৃবৃন্দেরা গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুল ইসলাম’র সাথে যোগাযোগ করি। কিন্তু তিনি ট্রাকগুলো ও চালককে থানা থেকে ছাড়তে অপারগতা প্রকাশ করেন। পেটের তাড়নায় গাড়ী চালিয়ে আমরা জীবন জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। গাড়ি ও চালকদের না ছাড়ার কারণে সিলেট জেলা ট্রাক-পিকাপ ও কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সম্পাদকের নির্দেশে আমরা অবরোধ করি। কিন্তু সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. শফিকুল ইসলাম খান’র আশ্বাসে আমরা অবরোধ তুলে নেই।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে এম নজরুল ইসলাম জানান, বিছনাকান্দি কোয়ারি থেকে পাথর উত্তোলন ও পরিবহনে সরকারিভাবে নিষিদ্ধ রয়েছে। ফলে পাথর উত্তোলন ও পরিবহনে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ বাঁধা দিয়ে আসছে। কিন্তু ট্রাক শ্রমিকেরা অবৈধ পাথর বোঝাই ট্রাক নিয়মিত চালিয়ে আসছেন। পাথর বোঝাই ট্রাক বন্ধে গোয়াইনঘাট পুলিশ নিয়মিত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন এরই ধারাবাহিকতায় আজ পাথর বোঝাই ৩টি ট্রাক ও চালকদের থানা পুলিশ আটক করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

August 2022
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..