জৈন্তাপুরে ডায়গনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান একটি সেন্টার সিলগালা,৩টিতে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা

প্রকাশিত: ১১:৫১ অপরাহ্ণ, জুন ৩, ২০২২

জৈন্তাপুরে ডায়গনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান একটি সেন্টার সিলগালা,৩টিতে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা

জৈন্তাপুর প্রতিনিধিঃ জৈন্তাপুরে উদ্ভোধনের ১৪ দিনের মাথায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে সিলগালা করা হয়েছে দি ইউনাইটেড ডায়গনস্টিক সেন্টার।
বিভিন্ন ত্রæটি থাকার কারনে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে র‌্যাংকিন প্যাথলজি এন্ড এক্স-রে সেন্টার, দি জৈন্তা ডায়গনস্টিক সেন্টার ও আলফা ডায়গনস্টিক সেন্টারকে। আর লাইসেন্স নবায়ন না থাকলেও দি জৈন্তা
পপুলার ডায়গনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজমেন্ট ছিল সন্তোষজনক।

৩ জুন শুক্রবার বিকাল ৩টায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন জৈন্তাপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট
রিপামনি দেবী। অভিযানে উপস্থিত ছিলেন জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সালাহ উদ্দিন মিয়া। সরকারের ঘোষণা
অনুযায়ী এবং দেশব্যাপি স্বাস্থ্য বিভাগে চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে এই অভিযান পরিচালিত হয়। জৈন্তাপুর উপজেলায় সর্বপ্রথম ডায়গনস্টিক সেন্টার
চালু হয় পূর্ব বাজারে র‌্যাংকিন প্যাথলজি এন্ড এক্স-রে সেন্টার। তার পর আলফা ডায়গনস্টিক সেন্টার এবং তার পরবর্তী সময়ে দি জৈন্তা জায়গনস্টিক
সেন্টার চালু হয়। স্বাস্থ্য বিভাগ কিংবা প্রশাসনের তেমন কোন নজরদারী না থাকায় ইচ্ছেমত চলছিল মানব দেহের পরীক্ষা-নিরীক্ষার এই মিনি কারখানাগুলো।
সেবার নামে অধিক মুনাফার লোভে অতিউৎসাহী হয়ে উঠেন নতুন উদ্যোক্তারা।অতিসম্প্রতি কিছু সংখ্যক ডাক্তার, ব্রাদার এবং স্থানীয় ব্যবসায়ীদের
সমন্বয়ে গড়ে উঠে দি জৈন্তা পপুলার ডায়গনস্টিক সেন্টার। প্রতিযোগিতার অংশ হিসেবে গত ২০ মে উপজেলা সদরের ফতেখা রোডে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদ্ভোধন করা হয় দি ইউনাইটেড ডায়গনস্টিক সেন্টার। অথচ মাত্র দুই সপ্তাহের
ব্যবধানে নবপ্রতিষ্টি এই প্রতিষ্ঠানটি লাইসেন্স না থাকার অপরাধে সিলগালা করে দেয় ভ্রাম্যমান আদালত। লাইসেন্স নবায়ন না থাকা এবং ব্যবস্থাপনায়
বিভিন্ন রকম ত্রæটি থাকার কারনে র‌্যাংকিন প্যাথলজি এন্ড এক্স-রে সেন্টার, দি জৈন্তা ডায়গনস্টিক সেন্টার ও আলফা ডায়গনস্টিক সেন্টারকে ৫
হাজার টাকা করে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমান করা হয়। তবে লাইসেন্স নবায়ন না
থাকলেও সেন্টারের যাবতীয় কার্যত্রæম ভালো থাকায় দি জৈন্তা পপুলার ডায়গনস্টিক সেন্টারকে জরিমানা করা হয়নি। তবে দি জৈন্তা পপুলার ডায়গনস্টিক
সেন্টার সহ অন্যান্য সকল ডায়গনস্টিক সেন্টারকে আগামী এক মাসের মধ্যে লাইসেন্স নবায়ন করার জন্য সময় বেধে দেওয়া হয়। এব্যাপারে জৈন্তাপুর
উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রিপামনি দেবী বলেছেন মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিরাপদ রাখতে সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী আমাদের
অভিযান অব্যাহত থাকবে। একটি ডায়গনস্টিক সেন্টার সিলগালা এবং ৩টি তে জরিমানার কথা স্বীকার করে বলেন আমরা যাদের লাইসেন্স মেয়াদ উত্তীর্ণ
পেয়েছি তাদেরকে ১ মাসের সময় দিয়েছি। তারা লাইসেন্স নবায়ন করতে ব্যর্থ হলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Sharing is caring!

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

June 2022
S S M T W T F
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..