জকিগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলার মামলায় ইউপি সদস্য মুকিত কারাগারে

প্রকাশিত: 10:21 PM, May 22, 2022

জকিগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলার মামলায় ইউপি সদস্য মুকিত কারাগারে

Sharing is caring!

জকিগঞ্জ সংবাদদাতা :: সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৪ ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুল মুকিতকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রোববার একটি সন্ত্রাসী মামলায় আদালতে আত্মসমর্পন করেন আব্দুল মুকিত। জামিন চাইলে আদালত নাকচ করে তাকে জেলহাজাতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জকিগঞ্জ সদর ইউপি সদস্য আব্দুল মুকিত ও তার সহযোগীরা দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে ছিলেন। যার ফলে জকিগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ৪ ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণ বর্তমানে সকল ধরনের সুযোগ-সুবিদা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।
জানা গেছে, ইউপি সদস্য আব্দুল মুকিতের নির্যাতন-নিপীড়নে অতিষ্ঠ সিলেটের জকিগঞ্জ সদরের মানুষজন। নানা অপরাধ মূলক কর্মকাণ্ড চালিয়েও অজ্ঞাতকারণে ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন তিনি। আব্দুল মুকিত উপজেলার ছবড়িয়া গ্রামের মাসুক উদ্দিনের পুত্র ও বর্তমানে জকিগঞ্জ সদর ইউপি সদস্য। সম্প্রতি একটি সন্ত্রাসী হামলার মামলায় প্রধান আসামী হয়ে পলাতক ছিলেন ।
অভিযোগে প্রকাশ, গত ৩১ মার্চ মুকিত ও তার সহযোগীরা নিজ গ্রামের গফুর ভেরাইটিজ স্টোরে সন্ত্রাসী হামলা ও লুটপাট চালায়। এসময় দোকানের দেড়লাখ টাকা লুটপাটের পাশাপাশি মহিলাসহ চারজনকে গুরুতর জখম করে। মুকিত ও তার সহযোগীদের হামলায় দোকান মালিক আব্দুল গফুর ও তার ছেলে দিদারুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় মেম্বার আব্দুল মুকিতসহ কয়েকজন আসামী করে জকিগঞ্জ থানায় একটি মামলা {নং-০১(৪)২২} করা হয়। এ মামলায় পুলিশ ২ জনকে গ্রেফতার করলেও প্রধান আসামী মেম্বার আব্দুল মুকিতকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
গত ৪ এপ্রিল মুকিত ও তার সহযোগীরা উক্ত মামলার সাক্ষী জাবের আহমদকে রাস্তায় পেয়ে মাধর করতে উদ্যত হয় এবং মামলা তুলে না নিলে ও সাক্ষী দিলে তাকে খুন এবং গুম করে ফেলার প্রকাশ্যে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় ৪ এপ্রিল আব্দুল মুকিত ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে জকিগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (নং-১৩৪) করা হয়।
এর আগে গত ৩০ মার্চ স্থানীয় ছবড়িয়া গ্রামের সুমনা বেগম নামের এক মহিলা ছেলের জন্ম নিবন্ধন শুদ্ধ করাতে ইনিয়ন অফিসে যান। এসময় আব্দুল মুকিত ওই মহিলাকে অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করে ইউনিয়ন অফিস থেকে তাড়িয়ে দেয়।
এখানেই শেষ নয়, ঘটনার জের ধরে আব্দুল মুকিত ৪ এপ্রিল রাত ২টায় দলবল নিয়ে সুমনার ঘরে জোর পূর্বক প্রবেশ করে এবং মারধর ও ওই মহিলার শ্রীলতা হানী ঘটায়। এ ঘটনায় সুমনা বেগম বাদী হয়ে আব্দুল মুকিত ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে জকিগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন, যা থানা পুলিশের তদন্তে আছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

May 2022
S S M T W T F
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..