অবৈধ টিকিট কাউন্টার দিয়ে চলছে সিসিকের নগর এক্সপ্রেস

প্রকাশিত: 10:49 PM, October 30, 2021

অবৈধ টিকিট কাউন্টার দিয়ে চলছে সিসিকের নগর এক্সপ্রেস

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী প্রায়ই বলেন, সিলেট নগরীর যানজটের মূল কারণ যত্রতত্র অবৈধ পার্কিং ও অবৈধ গাড়ি স্ট্যান্ড। এই অবৈধ পার্কিংয়ের কারণে সৃষ্ট যানজটে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন নগরবাসী।এবার নগরবাসীর অভিযোগ খোদ মেয়রের বিরুদ্ধে,তাদের অভিযোগ সর্ষের মধ্যে ভূত থাকলে তাড়াবে কে?

এসব অভিযোগ পেয়ে সর্ষের মধ্যে ভূত খুঁজতে থাকে সিলেট প্রতিদিন। বন্দরবাজার, জিন্দাবাজার, চৌহাট্টা, আম্বরখানা, সোবহানীঘাটসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় যানজটের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত হয় নগর এক্সপ্রেস এর বাস।যত্রতত্র পার্কিং,যেখানে সেখানে যাত্রী উঠানামা এর প্রধান কারন হিসেবে এ প্রতিবেদকের কাছে উঠে আসে।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের অনুমোদিত সিটি বাস মালিক গ্রুপের নগর এক্সপ্রেস যাত্রা শুরু করেছিলো ২০১৯ সালের ২৫ শে ডিসেম্বর।যাত্রা শুরুর প্রায় ২ বছর হয়ে গেলেও যাত্রী পরিবহনে এখন পর্যন্ত তাদের নেই কোন বৈধ টিকিট কাউন্টার বা স্ট্যান্ড।যত্রতত্র রাস্তার মধ্যেই অবৈধভাবে টিকিট কাউন্টার আর বাস স্ট্যান্ড পরিচালনা করে আসছে নগর এক্সপ্রেস।
বিভিন্ন সময় অবৈধ স্ট্যান্ডের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনায় সিসিককে বেশ সক্রিয় দেখা গেলেও নগর এক্সপ্রেসের ব্যাপারে বেশ উদাসীন থাকার অভিযোগ করেন অনেকেই।

৬ টি রুটে ৪১ টি বাস দিয়ে শুরুর কথা থাকলেও ২১ টি বাস দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলো সিটি বাস মালিক গ্রুপ।এর মধ্যে ১ টি বাস মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত থাকার কথা ছিলো।কিন্তু বাস্তবে সিলেটে গত দুই বছর থেকে সেরকম কোন বাসের দেখা মেলেনি।আর বর্তমানে ২১ টি বাসের মধ্যে বন্ধ আছে বেশ কয়েকটি।

যাত্রীদের উন্নত সেবাদানের প্রতিশ্রুতি থাকলেও কাঙ্ক্ষিত সেবাই দিতে পারছেনা বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী অনেকেই।
এ ব্যাপারে অভিযোগ করে নগরীর মেন্দিভাগ এলাকার বাসিন্দা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকুরীজীবি আলেয়া বেগম বলেন,আমি প্রতিদিনই নগর এক্সপ্রেসে যাতায়াত করি। মহিলাদের জন্য আলাদা একটি গাড়ি থাকলে ভালো হতো।আর বৈধ টিকিট কাউন্টার ও স্ট্যান্ড না থাকায় গাড়িতে উঠানামা করতে মহিলাদের অনেক বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।

এ সময় অভিযোগের সুরেই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নগর এক্সপ্রেসের এক চালক জানান,মেয়রের গাফিলতির কারনে তারা আছেন উভয় সংকটে।নির্দিষ্ট কাউন্টার ও স্টপেজের জায়গা দিচ্ছি, দিবো বলে দুই বছর কাটিয়ে দিলেন।আবার,নির্দিষ্ট বাসস্টপেজ না থাকার দরুন যত্রতত্র পার্কিং করায় বিভিন্ন পয়েন্টে সিএনজি চালক,হকার,পুলিশ ও যাত্রীদের কাছে তাদের লাঞ্চনার শিকার হতে হয়।

সামগ্রিক বিষয়ে জানতে চাইলে সিটি বাস মালিক গ্রুপের পরিচালক মঈন উদ্দিন সুহেল জানান,আমরা অচিরেই আমাদের পরিচালকদের সাথে আলাপ আলোচনা করে বিষয়গুলো সমাধান করবো।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

October 2021
S S M T W T F
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

সর্বশেষ খবর

………………………..