কোম্পানীগঞ্জের পাথর ব্যবসায়ী-শ্রমিকরা এক কাজল সিংহের কাছে জিম্মি

প্রকাশিত: ৫:৪৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ২, ২০২১

কোম্পানীগঞ্জের পাথর ব্যবসায়ী-শ্রমিকরা এক কাজল সিংহের কাছে জিম্মি

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার : সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের পাথর কোয়রীতে চলে ব্যাপকহারে চাঁদাবাজি। কেউ করেন উপজেলা প্রশাসনের নামে, কেউ করেন পুলিশ-বিজিবি’র নামে, কেউ করেন জনপ্রতিনিধি হয়ে, কেউ করেন সরকার দলের ক্যাডার হয়ে, কেউ করেন মিডিয়ার নামে। আবার কেউ চাঁদাবাজি করেন আওয়ামী সরকারের আশীর্বাদপুষ্ঠ সংখ্যালঘু নামে। রকমফের এই চাঁদাবাজদের একজন মণিপুরী সম্প্রদায়ের চাকরিচ্যুত সেনা সদস্য কাজল সিংহ।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দয়ার বাজার এলাকার পুরান বালুচরের প্রয়াত রাধা মোহন সিংহের পুত্র তিনি। সেনাবাহিনীর সদস্য হয়ে পাথর ব্যবসার নামে চাঁদাবাজি করে কোটি কোটি টাকার মালিক হন। তার একাউন্টে জ্ঞাতআয় বহির্ভুত ৪৫ লাখ টাকা জমা থাকায় তাকে চাকুরিচ্যুত করা হয়। জব্ধ করা হয় তার ব্যাংক একাউন্ট,২টি ট্রাক ও একটি ফেলোডার গাড়ি। তার বিরুদ্ধে দায়ের করা হয় বিভাগীয় মামলা,যা এখনো বিচারাধীন।

চাকরিচ্যুতির পর আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠেন কাজল সিংহ। ভোলাগঞ্জ, শাহ আরেফিন টিলা, রোপওয়ে বাংকার, উৎমা,জিরোপয়েন্ট প্রভৃতি কোয়ারি এলাকায় শুরু করেন ব্যাপক হারে চাঁদাবাজি। কখনো বিজিবি’র নামে, কখনো পুলিশের নামে চাঁদাবাজি চালিয়ে যান অহরহ। যখনই কেউ কোন গর্ত থেকে পাথর উত্তোলন করেন,তখনই কাজল সিংহকে দিতে হয় দৈনিক ১ হাজার থেকে ২হাজার টাকা করে চাঁদা।

সম্প্রতি ইজারা মূলে উপজেলার উৎমা কোয়ারিতে পাথর উত্তোলন শুরু হলে কাজল সিংহও বসে থাকেননি। শুরু করেন দুর্দান্ত চাঁদাবাজি। উৎমা কোয়ারীর শতাধিক গর্ত থেকে গর্তপ্রতি দৈনিক ১ হাজার ১৫ শ’ ও ২ হাজার টাকা করে পুলিশ-বিজিবি’র নামে চাঁদা আদায় করছেন কাজল সিংহ। কাজল নিজেকে পুলিশের সদ্য যোগদান করা সার্কেল এএসপি প্রবাস সিংহের বাড়ি এলাকার জামাই ও সার্কেল এএসপি’র ঘনিষ্ট আত্মীয় পরিচয়ে প্রভাব খাটিয়ে সার্কেলের নামে ভয়-ভীতি দেখিয়ে সর্বত্র চাঁদা আদায় শুরু করেছেন বলে স্থানীয়রা আভিযোগ করেছেন।

তবে সার্কেল এএসপি প্রবাস সিংহ জানিয়েছেন তাঁর সার্কেল কোম্পানীগঞ্জ-গোয়াইনঘাট এলাকার কাজল সিংহ নামের কেউ তাঁর আত্মীয় নয় এবং পাথর কোয়ারী থেকে চাঁদা আদায়ের জন্য পুলিশের পক্ষে কাজল সিংহ নামের কাউকে নিযুক্ত করা প্রশ্নই ওঠে না। সুনির্দষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

কাজল সিংহের বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পাথর ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরা জিম্মি এবং অতিষ্ঠ। তারা অবিলম্বে চাঁদাবাজ কাজল সিংহকে গ্রেফতার এবং তার বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক আইনে ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানিয়েছেন।

কাজল সিংহের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি পাথর ব্যবসার কথা স্বীকার করলেও চাঁদাবাজির অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

March 2021
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares