কমলগঞ্জ বাগানের টিলায় ধর্ষণের শিকার কিশোরী

প্রকাশিত: ৯:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০

কমলগঞ্জ বাগানের টিলায় ধর্ষণের শিকার কিশোরী

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক: : মৌলভীবাজার কমলগঞ্জের এক কিশোরী বাড়ি ফেরার সময় তুলে নিয়ে বাগানের টিলার একটি ঘরে মধ্যে বেঁধে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাঁধা অবস্থায় ওই কিশোরীকে (১৭) এলাকাবাসী টিলার ওই ঘর থেকে উদ্ধার করেন।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) রাতে উপজেলার সীমান্তবর্তী ইসলামপুর ইউনিয়নের উত্তর কানাইদেশী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) সকালে রাজকান্দি এলাকার আনু মিয়ার পরিত্যক্ত পাহাড়ি টিলার একটি ঘরে মেয়েটি রয়েছে বলে জানতে পারে। তখন স্থানীয় লোকজনসহ পরিবারে সদস্যরা ধর্ষণের শিকার মেয়েটিকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় নির্যাতিতা পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ এই ধর্ষণের অভিযুক্ত জুবায়েদ আলী শাকিলকে (২৫) আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে। নির্যাতিত কিশোরী মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার রাতে উপজেলার সীমান্তবর্তী ইসলামপুর ইউনিয়নের উত্তর কানাইদেশী গ্রামের এক কিশোরী (১৭) চাচার বাড়ি থেকে ফেরার পথে পার্শ্ববর্তী রাজকান্দি গ্রামের বশির উল্ল্যার পুত্র জুবায়েদ আলী শাকিল (২৫) রাস্তা গতিরোধ করে। এসময় শাকিল তাকে তুলে নিয়ে পাহাড়ি টিলার উপর পরিত্যক্ত একটি ঘরে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে ধর্ষণ করে। ওই কিশোরী বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন তাকে রাতে খুঁজতে থাকেন। মঙ্গলবার সকালে রাজকান্দি এলাকার আনু মিয়ার পরিত্যক্ত পাহাড়ি টিলার ঘরে মেয়েটি রয়েছে বলে জানতে পেরে, স্থানীয় লোকজনসহ পরিবারে সদস্যরা ওই কিশোরীকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। এলাকাবাসীর আসার খবর পেয়ে অভিযুক্ত যুবক পালিয়ে যায়।

কমলগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুধীন চন্দ্র দাসসহ জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ওই কিশোরীকে চিকিৎসার জন্য কমলগঞ্জ উপজেলা ৫০ শষ্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে প্রেরণ করেন। মেয়েটি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত জুবায়েদ আলী শাকিলকে (২৫) আটকের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শুকুর আলী বলেন, ঘরে বাঁধা অবস্থায় নির্যাতিত মেয়েটিকে স্থানীয় এলাকাবাসীর সহায়তায় পরিবারে লোকজন উদ্ধার করেন।

কমলগঞ্জ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, বিষয়টি স্পর্শকাতর। তাই ভালো চিকিৎসার জন্য জেলা সদরে পাঠানো হয়েছে।
অভিযুক্ত জুবায়েদ আলী শাকিলের (২৫) পিতার সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে মুঠোফোনে বন্ধ পাওয়া যায়।

কমলগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুধীন চন্দ্র দাস বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং হাসপাতালে ভর্তি মেয়েটির বক্তব্য শুনেছি। আসামীকে গ্রেফতার করা চেষ্টা চলছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

October 2020
S S M T W T F
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares