গোয়াইনঘাটে ইউআরসির ৪লক্ষ টাকা আত্মসাতের পায়তারা, সর্ব মহলে তোলপাড়

প্রকাশিত: ৩:২২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

গোয়াইনঘাটে ইউআরসির ৪লক্ষ টাকা আত্মসাতের পায়তারা, সর্ব মহলে তোলপাড়

Sharing is caring!

গোয়াইনঘাট  প্রতিনিধি :: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা ইউআরসি (উপজেলা রিসোর্স সেন্টার) ইন্সট্রাক্টর এইচএম তারিকুল ইসলাম ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনস্বাস্থ্য মোঃ ইউনুস আলী’র বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের ব্যাপক অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে গোটা উপজেলা জুড়ে তুলকালামের শেষ নেই। সমগ্র উপজেলার সচেতন মহলের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চলতি বছরের ১১মার্চ গোয়াইনঘাট উপজেলা ইউআরসির বাথরুম নির্মানের জন্য সরকার কর্তৃক ৪.১৬লক্ষ টাকা বরাদ্দ আসলেও অদ্যাবদি পর্যন্ত সেই কাজ দেখেনি কোন আলোর মুখ।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী ইন্সট্রাক্টর এইচএম তারিকুল ইসলাম ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনস্বাস্থ্য মোঃ ইউনুস আলী ইউআরসির বাথরুম নির্মানের জন্য সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত ৪.১৬ লক্ষ টাকার কাজ ফাঁকি দিয়ে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করতে নতুন করে ফন্দি আটেন। টয়লেট স্থাপনের পরিবর্তে ইউআরসিতে বিদ্যমান পুরাতন টয়লেট দুটি মেরামত ও একটি বেসিন তৈরী এবং বাথরুমে টাইলস’র কাজে ৩.৯৪লক্ষ টাকা ব্যায় দেখানো হচ্ছে।

এছাড়াও পুরোনো একটি দেওয়ালে দুই থেকে আড়াই ফুট প্লাস্টারের কাজ করে বরাদ্দের টাকা আত্মসাতের পায়তারায় লিপ্ত রয়েছেন এ দুই কর্মকর্তা। সরকারের নিয়মানুযায়ী কোন কাজের পূর্বে টেন্ডার ও কন্ট্রাক্টর নিয়োগ প্রক্রিয়া না করেই এমন প্রজেক্ট পরিচালনায় মত্ত রয়েছেন দুই কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ ইউনুস আলী বলেন, বরাদ্দ আসার পরপরই ইউআরসির বাথরুম নির্মানের জন্য কোন জায়গা না পাওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব মহোদয়ের সাথে পরামর্শ করেই বরাদ্দকৃত টাকা দিয়ে অফিস মেরামতের কাজ করাচ্ছি। তাছাড়া বাথরুম স্থাপনের পরিবর্তে অফিস মেরামতের জন্য পরিপত্রও রয়েছে।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নাজমুস সাকিব বলেন, ইউআরসিতে নতুন করে বাথরুম স্থাপন করার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা না পাওয়ার কারণে। বরাদ্দের ঐ টাকা দিয়ে উপজেলা রিসোর্স সেন্টার’র অফিস মেরামতের কাজ করা হচ্ছে। সরকারের দেওয়া উন্নয়ন বরাদ্দের ঐ কাজে কোন অনিয়ম বা দূর্নীতি হলে কঠোর ব্যাস্থা নেওয়া হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

September 2020
S S M T W T F
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares