বিশ্বনাথে বিধবা’র বসত ঘরে তালা!

প্রকাশিত: ৮:২৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০

বিশ্বনাথে বিধবা’র বসত ঘরে তালা!

Sharing is caring!

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে এক বিধবা মহিলাকে স্কুল পড়–য়া একমাত্র শিশু সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে বসত ঘরে তালা দিল সৎ ছেলেরা!
ওই বিধবা উপজেলার দশঘর ইউনিয়নের মান্দারুকা গ্রামের মৃত আলতাবুর রহমানের দ্বিতীয় স্ত্রী নেহার বেগম (৪৫)। গত ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বিকেলে ভাত খাওয়া থেকে তুলে শুধু পরনের কাপর দিয়ে তাকে চুলের মুঠোয় ধরে ও শিশু পুত্রকে গাড় ধাক্কা দিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয় দুই সৎ পুত্র আতিকুর রহমান (৪০) ও সুমন মিয়া (৩০)।
এসময় তাদের সাথে ছিল ওই বিধবার আরেক ভাসুর পুত্র খালিক মিয়া (৩৫)। বর্তমানে ওই মহিলা তার স্কুল পড়–য়া শিশু পুত্র ছাদিকুর রহমান (১২) কে নিয়ে চারদিন ধরে এক কাপড়ে একই গ্রামের ভাসুর আমজদ মিয়ার বাড়িতে বসবাস করে আসছেন।
এমন অভিযোগ এনে সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিধবা নেহার বেগম বাদি হয়ে ওই তিনজনের নামে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন, প্রায় ১২ বছর পূর্বে তার স্বামী আলতাবুর রহমান মারা যান। এর পর থেকে তিনি অন্যের বাড়িতে কাজ করে তার একমাত্র পুত্র সন্তানকে নিয়ে চরম অভাব অনটনে জীবন চালিয়ে যাচ্ছেন।
কাজের বিনিময়ে তিনি যে টাকা পান সেই টাকা দিয়ে ছেলের পড়া লেখা ও সংসার চলে। সৎ ছেলেরা তাদের দেখাশুনার দায়িত্ব না নিয়ে উল্টো বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার জন্য অত্যাচার করে আসছে। অবশেষে শুক্রবার তাদেরকে এক কাপড়ে বাড়ি থেকে বের করে বসত ঘরে তালা দিয়ে রেখেছে।
ওই বিধবা গ্রামের লোকজনের কাছে গিয়ে বিচার চান। কিন্তু আসামিরা মুরব্বিয়ানদের ডাকে সাড়া দেয়নি। তাই তিনি থানায় ওই অভিযোগটি দায়ের করেন। এব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত সৎ ছেলে সুমন মিয়ার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হয়।
কিন্তু তিনি মোবাইল ফোনে বক্তব্য দিতে অপারগতা জানিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, শুক্রবারে তার বাড়িতে গিয়ে বক্তব্য আনতে।
অভিযোগের কথা স্বীকার করে থানার ওসি শামীম মূসা বলেন-তদন্ত স্বাপক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

September 2020
S S M T W T F
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares