রাতের আধারে যাদুকাটার পাড় কেটে বালু উত্তোলন, চারটি নৌকাসহ ৭জন আটক

প্রকাশিত: ১১:৪০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

রাতের আধারে যাদুকাটার পাড় কেটে বালু উত্তোলন, চারটি নৌকাসহ ৭জন আটক

Sharing is caring!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার দায়ে বালুসহ চারটি স্টিল বডি নৌকাসহ ৭জনকে আটক করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)সৈয়দ আমজাদ হোসেন। আটককৃত বালু বোঝাই নৌকা গুলোর আনুমানিক মূল্য অর্ধকোটি টাকা।
এ দিকে আটককৃত নৌকাসহ মানুষ ছাড়িয়ে নিতে রবিবার সকাল থেকে তৎপরতা শুরু করেছে একটি সংঘবদ্ধ ও চিহ্নিত দালাল চক্র। শেষ পর্যন্ত ৫জনকে আসামী করে বালু মহাল আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আর দু জনকে বয়স কম থাকার কারন দেখিয়ে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।
আটককৃতরা হল,, মৃত হিরা গাজির ছেলে কামাল মিয়া(৫০),ইদু মিয়ার ছেলে হযরত আলী (২৪),সাজিদ মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া(২২),বাবুল মিয়ার ছেলে রবিউল ওয়াল(২০)আবুল মন্নাফ মিয়ার ছেলে নুর মোহাম্মদ (২১)সবার বাড়ি বিশ্বম্ভপুর উপজেলার মিয়ারচর গ্রামে। মামলা নং ৭,তারিখ ১৩,০৯,২০২০।
তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,আটককৃত নৌকা ও বালু সিজ করা হয়েছে। মামলা দায়ের করে আটককৃত ৫জনকে সুনামগঞ্জ পাঠান হয়েছে।
গত শনিবার(১২,সেপ্টেম্বর)রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে নৌকাসহ ৭জনকে আটক করা হয়।
জানাযায়,উপজেলা বাদাঘাট ইউনিয়নের সীমান্ত নদী যাদুকাটায় একদল বালু খেকু চক্র কাজ বন্ধ থাকায় মধ্যেও রাতের আধারে সরকারী নিদর্শনা অমান্য করে বৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে আর ঘাগটিয়া গ্রামের শিয়ালের টেক নামক স্থান থেকে পাড় কেটে নিচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার(১২,সেপ্টেম্বর)গভীর রাতে তাহিরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি)সৈয়দ আমজাদ হোসেন এর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বড়টেক এলাকা থেকে বালুসহ চারটি স্টিল বডি নৌকাসহ ৭জনকে আটক করে। অভিযানের টের পেয়ে অন্যান্য বালুখেকু চক্র নৌকা ফেলে পালিয়ে যায়।
স্থানীয় এলাকাবাসী জানান,সরকারী নির্দেশ অমান্য করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে জাদুকাটা নদীর ঘাগটিয়া গ্রামের শিয়ালের টেক নামক স্থান থেকে পাড় কেটে দীর্ঘ দিন ধরে পাড় কেটে নিচ্ছে স্থানীয় এক সাংবাদিকধারী ব্যক্তি। ঐ ব্যক্তি নিজে জমি কিনে নিজে উপস্থিত থেকে পাড় কেটে বিক্রি করছে। এবং বালুখেকুদের সাথে মাসোহারা নিয়ে তাদের সহায়তা করছে। ঐসব বালু খেকু ও চাঁদাবাজদের কঠোর হস্তে দমন করার দাবী জানান উপজেলার সচেতন মহল।
এ বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) সৈয়দ আমজাদ হোসেন জানান,বালুসহ চারটি স্টিল বডি নৌকাসহ ৭জনকে আটক করা হয়। নৌকার মালিকের খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপ্রাপ্ত্য দুই জনকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর এই ঘটনার সাথে জরিত মুল আসামীদের আটকের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

September 2020
S S M T W T F
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares