ছাতকে ৬ পিছ ইয়াবা সহ যুবক আটক, বড় অংকের টাকায় রফাদফা

প্রকাশিত: ১১:৫৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০২০

ছাতকে ৬ পিছ ইয়াবা সহ যুবক আটক, বড় অংকের টাকায় রফাদফা

Sharing is caring!

ক্রাইম প্রতিবেদক : সুনামগঞ্জের ছাতক পৌর এলাকার কাষ্টম রোড থেকে গত বুধবার সন্ধ্যায় থানা পুলিশের এএসআই আবু তালেব ৬ পিছ ইয়াবা সহ শাহিনুর কালাম (৩২) নামের এক যুবককে আটক করেন। আটকৃত শাহিনুর কালাম ছাতক থানাধীন এলাকার গনেশপুর গ্রামের মৃত ইছাক আলীর ছেলে।

জানা গেছে, শাহিনুর কালামকে আটকের পর থানায় নিয়ে যান এএসআই আবু তালেব। পরে থানার ওসি (তদন্ত) মঈন উদ্দিনকে বিষয়টি জানানো হয়। কিন্তু এএসআই আবু তালেবের কালামকে সময় কোন ডিউটি ছিলো না। তারপর তিনি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাকে আটক করেন।

পরবর্তীতে আটকের বিষয়টি জানতে পারেন শাহিনুর কালামের ছোট ভাই জাবির আহমদ। তিনি বড় ভাই আটকের খবর শুনে ছোঁটে যান থানায়। থানায় যাওয়ার পর এএসআই আবু তালেব জাবিরকে নিয়ে ওসি তদন্তের সাথে দেখা করান। পরে ওসি তদন্ত তার কাছে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন।

শাহিনুর কালামের ছোট ভাই জাবির আহমদ জানান, তার ভাইকে আটকের খবর শুনে থানায় গিয়ে এএসআই আবু তালেবের সাথে যোগাযোগ করেন। পরে আবু তালেব ওসি (তদন্ত) মঈন উদ্দিনের সাথে কথা বলার জন্য বলেন। ওসি তাদের কাছে এক লক্ষ টাকা দাবি করেন। দীর্ঘ আলাপের পর ৪০ হাজার টাকা নিয়ে শাহিনুর কালামকে ছেড়ে দিতে রাজি হন ওসি তদন্ত। পরে তারা ওসি তদন্তের কথা মতো বাড়ির জমি বন্ধক দিয়ে রাতেই বিশ হাজার টাকা নিয়ে এএসআই আবু তালেবের মাধ্যমে ওসিকে দেন এবং সকালে আরও বিশ হাজার টাকা দেওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু বাকি টাকা পরিশোধ না করায় শাহিনুর কালামকে বৃহস্পতিবার সকালে সুনামগঞ্জ আদালতে সন্ধ্যেহ মূলক ভাবে চালান করেন।

জাবির আরও জানান, বাকি বিশ হাজার টাকা তাদের তালতো ভাই বাবলু আগামী ১১ আগষ্ট দিতে হবে। অন্যতায় টাকা না দিলে কালামকে ফের গ্রেফতার করা হবে। সর্বশেষ তারা আদালতের মাধ্যমে কালামকে জামিনে ছাড়িয়ে নিয়ে যান তারা। বাকি টাকা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

পরে থানা ওসি (তদন্ত) মঈন উদ্দিনকে বিষয়টি জানানো হলে তিনি যুবকের পরিবারের কাছে বড় অংকের টাকা দাবি করেন। এমন অভিযোগ করেছেন আটকের ভাই জাবির আহমদ।

ছাতক থানার এএসআই আবু তালেব এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ক্রাইম সিলেট বলেন, ‘ইয়াবা সহ তিনি কাউকে আটক করেননি। তবে শাহিনুর কালামকে আটক করছেন বলে স্বীকার করেন।

ছাতক থানার ওসি তদস্ত মঈন উদ্দিনের সাথে সরকারি নম্বারে একাধিক বার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares