ছাতকে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ

প্রকাশিত: ২:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

ছাতকে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ

Sharing is caring!

ছাতক প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের ছাতকে মরনব্যধি করোনার আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাথে যুক্ত হয়েছে ভয়াবহ বন্যা। টানা দিন দিনের ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে নতূন নতূন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এ কারণে সীমাহীন দূর্ভোগে পড়েছেন এ অঞ্চলের দু’লক্ষাধিক মানুষ। এসবের সাথে গেল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের সৈদেরগাঁও, শ্রীপুর ও ফুরকানচক গ্রামে বয়ে যায় ঘুর্ণিঝড়। “এ যেন মরার উপর খাড়ার ঘাঁ”। ঘুর্ণিঝড়ে তছনত করে দিয়েছে তিনটি গ্রামের প্রায় ২৫টি কাঁচা, টিনসেড ও সেমিপাকা ঘর-বাড়ি। কয়েকটি বড় বৃক্ষ ফেলে দেয় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে। ভেঙ্গে পড়ে কয়েকটি বিদ্যুতের খুঁটি। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে বিদ্যুৎ সংযোগ। ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের খোজ খবর নিতে রোববার (২৮জুন) বিকেলে সৈদেরগাঁও গ্রামে পরিদর্শনে যান গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নিজাম উদ্দিন। এসময় তার সাথে ছিলেন, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান জয়। পরিদর্শনে সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থসহ ২৫টি পরিবারের প্রত্যেক সদস্যদের হাতে নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে একহাজার টাকা করে বিতরণ করেন। বিতরণকালে তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে ধৈযের্যর সাথে দূযোর্গ মোকাবেলা করার আহবান জানান। এসময় উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা হাবিবুর রহমান জয়সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে শনিবার বিকেলে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের বাড়ি-ঘর পরিদর্শন করেছেন সুনামগঞ্জ-৫, ছাতক-দোয়ারাবাজার আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক। তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের খোজ খবর নিয়ে তাৎক্ষনিক খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. গোলাম কবির, এএসপি সার্কেল বিল্লাল হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপস শীল, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল, এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমানসহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares