কানাইঘাট বীরদল অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩টি পদের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

প্রকাশিত: ১১:৪৮ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২০

কানাইঘাট বীরদল অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩টি পদের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

Sharing is caring!

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: সিলেটের কানাইঘাটে স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়ম-লুকোচুরি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবাদের মূখে বাতিল করা হয়েছে এ পরীক্ষা। পণ্ড হয়ে গেছে জামায়াতীদের নিয়োগ ষড়যন্ত্র। বৃহস্পতিবার(১৮ জুন) কানাইঘাট উপজেলার রাজাগঞ্জ ইউনিয়নের বীরদল অগ্রগামী উচ্চবিদ্যালয়ের এ নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়।

স্থানীয় সংবাদ সূত্র জানায়- উপজেলার বীরদল অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া জামাল ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম দু’জনই জামায়াত সমর্থিত। গতবছর স্কুলটি এমপিওভুক্ত হলে তিনটি পদে একজন করে নিয়োগ দিতে হচ্ছে। পদগুলো হচ্ছে- প্রধান শিক্ষক,অফিস সহকারী ও এমএলএসএস। গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর দৈনিক সিলেটের ডাক পত্রিকায় এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউন জনিত নানা কারণে সময়মত নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। এ অবস্থায় পরবর্তী সার্কুলার না জানিয়ে এই করোনাকালে হঠাৎ করে ১৮ জুন পরীক্ষার আয়োজন করে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার সকালে এ পরীক্ষা গ্রহণ শুরু করে স্কুল মনোনীত নিয়োগ বোর্ড। নিয়োগ বোর্ডে ছিলেন স্কুল কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া জামাল, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম ও ডিজি প্রতিনিধি কানাইঘাট সরকারী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুখলিছুর রহমান। নিয়োগ পরীক্ষায় প্রধান শিক্ষক পদে পরীক্ষার্থী হাজির করা হয় স্কুল সভাপতির আত্মীয় ও স্কুল কমিটির অভিভাবক সদস্য আজমল হোসেন,জহুরুল ইসলাম মুজিবুল হক এই ৩ জনকে। আফিস সহকারী পদে পরীক্ষার্থী হাজির করা হয় তাদের স্বজনদের মধ্য থেকে রুহুল ইসলাম ও হেলাল উদ্দিনসহ ৯ জনকে। এমএলএসএস পদে হাজির করা হয় বর্তমান প্রধান শিক্ষকের বড়ভাই গোলাম আজম ধলাই, ভাগ্নে খালেদ আহমদ ও তার চাচাতো ভাই রুবেল আহমদসহ ৪ জনকে। নাটকীয় এ নিয়োগ পরীক্ষার খবর জানাজানি হলে এলাকাবাসী প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন।
এলাকাবাসী তাদের ক্ষোভের বিষয়টি তাৎক্ষণিক অবগত করেন সিলেট-৫ আসনের এমপি হাফিজ আহমদ মজুমদারকে। এমপি’র হস্তক্ষেপে ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার চাপে লুকোচুরি ও নাটকীয় নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করতে বাধ্য হয় স্কুল কর্তৃপক্ষ।
কানাইঘাটের বীরদল অগ্রগামী উচ্চ বিদ্যালয় সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়ি জামাল ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার তরিকুল ইসলাম নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান- পরীক্ষা বিধি মোতাবেক গ্রহণ করা হলেও স্কুলের সম্মানীত ডোনার এমপি হাফিজ আহমদ মজুমদারের নির্দেশনায় তা বাতিল ঘোষনা করা হয়। পরবর্তী সার্কুলারের মাধ্যমে আবার নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানান তারা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares