করোনায় আক্রান্ত সাংবাদিক আবুলের পাশে দাঁড়ালেন নগরীর বিলপাড় এলাকাবাসী

প্রকাশিত: ৮:৫৭ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২০

করোনায় আক্রান্ত সাংবাদিক আবুলের পাশে দাঁড়ালেন নগরীর বিলপাড় এলাকাবাসী

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার :: পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ অনলাইন সংবাদপত্র সম্পাদক পরিষদের (বনেক) সিলেট বিভাগীয় সম্পাদক আবুল হোসেন। তিনি দৈনিক সবুজ সিলেট পত্রিকার সাবেক স্টাফ রিপোর্টার ও একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের সম্পাদক।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার পর প্রাপ্ত ফলাফলে আবুল হোসেনের করোনা পজেটিভ আসে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আবুল নিজেই।

সাংবাদিক আবুল বর্তমানে নগরীর ১১ নং ওয়ার্ডে বিলপাড়স্থ বাসায় হোম আইসোলেশনে আছেন। বাসাতেই তাদের চিকিৎসা চলছে।

এমন খবর পেয়ে সাথে সাথে নগরীর ১১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম ঝলক ওই সাংবাদিকের খোঁজ খবর নেন। সেই সাথে স্থানীয় এলাকার লোকজন প্রতিনিয়ত তার সাথে যোগাযোগ করছেন এবং তাকে সকল ধরণের সহযোগিতা করছেন।

বিলপাড় এলাকার সমাজ সেবক আমিনুল, বিলপাড় পাঞ্চায়িত কমিটির সভাপতি কয়েছ আহমদ, সহ সভাপতি বদরুল আলম শাহজাহান, সহ সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারন সম্পাদক জামাল আহমদ জবান, যুব সমাজ রাহেল আহমদ, শামিম আহমদ, ওজি আহমদ, সাবেক সভাপতি মাহবুবুর রহমান মমতাজ, সহ সাধারন সম্পাদক আব্দুল মুমিন নান্নু, সাবেক মসজিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, মোস্তফা আহমদসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন আবুল হোসেন।

করোনা আক্রান্ত সাংবাদিক আবুল হোসেন বলেন, করোনা আক্রান্তের খবর পেয়ে নগরীর ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ বিলপাড়স্থ এলাকার প্রতিবেশীরা যে ভাবে ছায়ার মতো আমার পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগীতা করছেন তাতে আমি সুস্থ। আমার পাশে যে ভাবে এলাকার লোকজন দাঁড়িয়ে এবং মানবতা দেখিয়েছেন। ঠিক এভাবে যদি অন্যান্য এলাকার লোকজন আতঙ্কিত না হয়ে করোনা আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ান তাহলে কোন করোনা আক্রান্ত রোগী অসহায় হবে না। আমি বিলপাড় এলাকাবাসীর মানবতায় কৃতজ্ঞ।

এদিকে, তার আক্রান্তের খবর পেয়ে সিলেট জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন খোঁজ খবর নিচ্ছেন এবং ঈদের দিন তার বাসায় খাদ্য-সামগ্রী পাঠিয়ে দেন।

উল্লেখ্য, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফের ব্যক্তিগত সহকারী ইমন ও সাংবাদিক আবুল হোসেনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টিনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দৈনিক শ্যামল সিলেট পত্রিকা ও প্রতিদিনের স্টাফ ফটো সাংবাদিক রেজা রুবেল এবং দৈনিক সবুজ সিলেট ও সিলেট প্রতিদিনের স্টাফ ফটোগ্রাফার আজমল আলী।

করোনাকালে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে একাধিকবার নগরভবনসহ মেয়রের বাসভবনে যাওয়া-আসা করতে হয়েছে। তাই তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে দেশবাসীর কাছে আবুল হোসেন ও তার পরিবারের জন্য দোয়া চেয়েছেন বাংলাদেশ অনলাইন সংবাদপত্র সম্পাদক পরিষদ বনেকের কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি মো. খায়রুল আলম রফিক ও সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম আসাদ।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares