কোম্পানীগঞ্জের আলোচিত পাথর খেকো মোহাম্মদ আলী কারাগারে

প্রকাশিত: ৮:২৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০২০

কোম্পানীগঞ্জের আলোচিত পাথর খেকো মোহাম্মদ আলী কারাগারে

Sharing is caring!

স্টাফ রিপোর্টার :: অবশেষে ধরা পড়ে কারাগারে ঠাঁই হয়েছে কোম্পানীগঞ্জের অন্যতম পাথরখেকো ও বিভিন্ন মামলার পলাতক আসামি মোহাম্মদ আলীর। আলোচিত পাথর খেকোকে গত সোমবার সন্ধ্যায় তার বাড়ির সামন থেকে আটক করে র‌্যাব-৯। গতকাল মঙ্গলবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। মোহাম্মদ আলী উপজেলার কাঠালবাড়ি গ্রামের জিয়াদ আলীর ছেলে।

র‌্যাব-৯ এর অপারেশন কমান্ডার মেজর মো. শওকাতুল মোনায়েম জানিয়েছেন, মোহাম্মদ আলী একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজ ও পাথরখেকো।

কোম্পানীগঞ্জের যে কয়েকজন পাথরখেকো রয়েছেন তার মধ্যে মোহাম্মদ আলী অন্যতম। ইতোমধ্যে বশির ও আইয়ুব আলী নামের আরও দুই পাথরখেকোকে গ্রেফতার করা হয়। কোম্পানীগঞ্জের আলোচিত পাথর কোয়ারি শাহ আরেফিন টিলা, উৎমা, ভোলাগঞ্জ, বনপুর সব জায়গায় আধিপত্য বিস্তার করে মোহাম্মদ আলী তার নেতৃত্ব ও মদদে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করেন। পাথররাজ্যে বিস্তার ছাড়াও জলমহাল ইজারা, পাথর লুট ও পুলিশের উপর হামলাসহ বিভিন্ন কারণে বার বার আলোচনায় আসেন মোহাম্মদ আলী। গত কয়েক বছরে তিনি ও তার পিতা জিয়াদ আলী কোটি কোটি টাকার মালিক হন। ডজনখানেক মামলা থাকার পরও দীর্ঘদিন ধরে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ান তিনি।

গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে কিছুদিন আত্মগোপনে চলে যান মোহাম্মদ আলী। দীর্ঘদিন পর আবার প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা শুরু করলে র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে।

তার বিরুদ্ধে ৪টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল উল্লেখ করে কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সজল কুমার কানু জানিয়েছেন, মোহাম্মদ আলীকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares