বান্দরবানে অজ্ঞাত রোগে শিশুর মৃত্যু, আক্রান্ত ৬৫

প্রকাশিত: ৬:২৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৬, ২০২০

বান্দরবানে অজ্ঞাত রোগে শিশুর মৃত্যু, আক্রান্ত ৬৫

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : বান্দরবানের লামায় অজ্ঞাত রোগে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এ রোগে গ্রামের ১৫টি পরিবারের ৬৫ জন নারী-পুরুষ আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুতই বাড়ছে। সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় আক্রান্ত ৩৭ জনকে লামা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এসে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আক্রান্তদের নমুনা রক্ত সংগ্রহ করেছেন স্বাস্থ্য বিভাগের একটি মেডিকেল টিম। সংগ্রহ করা রক্ত ঢাকায় স্বাস্থ্য বিভাগের গবেষণাগারে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা।

স্বাস্থ্য বিভাগ ও পাড়াবাসী জানায়, জেলার লামা উপজেলার সদর ইউনিয়নের পোপা মৌজায় পুরাতন লাইল্যা পাড়ায় অজ্ঞাত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। কয়েকদিনের ব্যবধানে আক্রান্ত হয়েছে গ্রামের ১৫টি পরিবারের ৬৫ জনের বেশি। ইতিমধ্যে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে চার মাসের এক শিশুর মারা গেছে।

বোমাং সার্কেলের পাড়া প্রধান কার্বারি লুংতু ম্রো জানান, লামা উপজেলা সদর থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার দূরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন দুর্গম পাহাড়ি গ্রামটিতে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুতই বাড়ছে। রোববার পাড়ার অনেকেই সুস্থ ছিলেন। কিন্তু সোমবার মাত্র চারজন সুস্থ রয়েছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল টিম সন্ধ্যায় এসে রাতে আবার চলে গেছে। কিছু ওষুধপত্র দিয়ে গেছে। তাদের পাড়ার কেউ কখনও কোনো ধরনের টিকা পায়নি। টিকার ব্যাপারেও জানে না তারা।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাহমুদুল হক বলেন, লাইল্যা পাড়ায় কোনো টিকা কেন্দ্র নেই। কয়েকটি পরিবারের জন্য টিকা দিতে যাওয়াও সম্ভব নয়। তাছাড়া ম্রো জনগোষ্ঠী টিকা নিতে আগ্রহীও নয়।

স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল টিমের প্রধান ডা. মো. কাউছার বলেন, রোগটি হামের মতো হলেও মনে হচ্ছে হাম নয়। এ কারণে আক্রান্তদের রক্ত সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে।

বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা জানান, প্রত্যন্ত অঞ্চলের পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর আক্রান্তদের শরীরে হামের মতো গুটি উঠেছে। তারা মারাত্মকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তবে ওই পাড়ার আশপাশের এলাকাগুলোতে যাতে রোগটি ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য একটি মেডিকেল টিম কাজ করছে। আক্রান্তদের রক্ত নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে আরও মেডিকেল টিম পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares