চাঁদা নিতে গিয়ে দুই কাথিত সাংবাদিক আটক

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১০, ২০২০

চাঁদা নিতে গিয়ে দুই কাথিত সাংবাদিক আটক

Sharing is caring!

ক্রাইম সিলেট ডেস্ক : রাজশাহীতে কাথিত সাংবাদিক মমতাজ বেগম ওরফে সাথি ও আতিকুর রহমান আটক নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী নগরীর একটি কাজি অফিসে চাঁদা নিতে গিয়ে নারীসহ দুই কাথিত সাংবাদিককে হাতেনাতে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত ১০টার দিকে নগরীর কাটাখালি থানাধিন দেওয়ান পাড়া মোড়ে মোঃ আসাদুল ইসলাম (৪৬) নামের এক কাজির অফিস থেকে তাদের আটক করে এসআই জাহাঙ্গীর ও সঙ্গীয় ফোর্স।আটককৃতরা হলো: আনন্দ টিভির রাজশাহী প্রতিনিধি পরিচয় দানকারী নারী সাংবাদিক মমতাজ বেগম ওরফে সাথি (৩২)। তার স্বামীর নাম রাসেদুজ্জামান ও পিতার নাম মোঃ আলী মৃধা। অপরজন মোঃ আতিকুর রহমান (২৭) বাংলাদেশ সমাচার রাজশাহী প্রতিনিধি পরিচয় দানকারী।নগরীর চন্দ্রিমা থানাধিন ছোটবনগ্রাম ১২রাস্তার মোড়ে বাড়ি ভাড়া করে

থাকেন বলে জানান তারা।জিজ্ঞাসাবাদে তারা দুইজন আপন ভাইবোন বলে স্বিকার করেছে। এছাড়া চাঁদাবাজি ও প্রতারনার বিষয়টি তারা স্বিকার করেছেন।কাজি মোঃ আসাদুল ইসলাম জানান, গত ১৫/২০দিন পূর্বে সাংবাদিক পরিচয়দানকারী সাথি ও আতিকুর রহমান তার অফিসে এসে বলে, আপনি বাল্য বিবাহ্ দেন এছাড়াও আপনার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ আছে আমাদের কাছে। খরচ না দিলে নিউজ করে দেবে। বিপদে পড়বেন আপনি। তাদের কথায় ভয় পেয়ে ৭০০ টাকা দেন কাজি।গতকাল সোমবার তারা আবারও গিয়ে বলে, জরুরী একটা কাজে পুঠিয়া যাচ্ছি একটি খামে টাকা রেডি রাখবেন ফেরার পথে নিয়ে যাবো।তাদের এই রকম আচারনে কাজির সন্দেহ হয়। পরে তিনি তার এক বন্ধু সাংবাদিকের নিকট পরামর্শ করে কাটাখালি

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি মোঃ জিল্লুর রহমানকে বিষয়টি অবগত করেন। ওসি বিকাল থেকে ওই কাজি অফিসে পুলিশি নজরদারীতে রাখেন। পরে রাত ৯টার দিকে ওই দুই সাংবাদিক কাজি অফিসে প্রবেশ করে টাকার খাম হাতে নেওয়ার সাথে সাথেই পুলিশ তাদের আটক করে কাটাখালি থানায় নিয়ে যায়।কথিত সাংবাদিক আটকের খবর ছড়িয়ে পড়লে একাধিক ভূক্তভোগী কাজি’রা উপস্থিত হন থানায়। বর্ণনা করেন তাদের প্রতারনার ঘটনা। কাটাখালি থানায় দক্ষ ও অভিজ্ঞ অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিল্লুর রহমান (ওসি)’র নিদের্শে (সিডিএমইএস) সার্চ দিয়ে দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। বেরিয়ে আসতে থাকে একে একে ৪/৫টি চাঁদাবাজি ও প্রতারনা মামলা। শুধু তাই নয় তাদের প্রকৃত ঠিকানা নওগাঁ কাশিমপুর রাজবাড়ি এলাকায়। তাছাড়া নওগাঁ

থানাতেও রয়েছে তাদের চাঁদাবাজি মামলা।কাটাখালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিল্লুর রহমান জানান, সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে কাজি অফিসে চাঁদাবাজি করার সময় কাজি ও স্থানীয়দের সহযোগীতায় সাথি ও আতিকুর রহমান নামের দুই প্রতারককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় কাজি মোঃ আসাদুল ইসলাম প্রতারনা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।ওসি আরো বলেন, তারা একাধিক কাজি অফিস, মিষ্টির দোকানসহ বিভিন্ন জায়গায় চাঁদাবাজি ও প্রতারনার তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন থানায় তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সর্বশেষ খবর

………………………..

shares